Sharing is caring!

প্রসেনজি ও ঋতুপর্ণা জুটি এক সময় দাপিয়েছে বক্স অফিস। মাঝে অনেকদিন বিরতি নিয়ে আবার পর্দায় ফিরেছিলেন ‘প্রাক্তন’ সিনেমা দিয়ে। যা বক্স অফিসে সুপার হিট।
বিয়ের পাঠ চুকিয়েছেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় এবং ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। ৯০ দশকে যে দুজনকে কাছাকাছি আসতে দেখলেই দর্শকমন শিহরিত হত, আজ তারাই শুভদৃষ্টি সারতে চলেছেন। সেই প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণা! আর তারা ‘প্রাক্তন’ নন। একে অপরের বর্তমান।

সোমবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) সকাল সকাল এমন চমক দিলেন টালিউডের এই দুই শিল্পী। ‘সবিনয় নিবেদন’ লেখা বিয়ের নিমন্ত্রণপত্র পৌঁছাল মানুষের ফোনে ফোনে।
নিমন্ত্রণে লেখা, ‘বিগত তিন দশকেরও বেশি সময় একসঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করার পর এবার আমরা নতুনভাবে আপনাদের সামনে ‘প্রসেনজিৎ ওয়েডস ঋতুপর্ণা’। গুরুজনদের আশীর্বাদ ও সকলের ভালোবাসা নিয়ে আমরা আগামীর পথ চলতে চাই। পাকা দেখা থেকে বিয়ের সব দায়িত্ব সামলাচ্ছেন সম্রাট শর্মা ও তার হাট্টি মাটিম টিম।
বিয়ের ঘটকালির দায়িত্বে পল্লবী চট্টোপাধ্যায়। বিয়ের তত্ত্বাবধানে মোহর ও শর্মিষ্ঠা। ডিজিটাল পত্রদ্বারা নিমন্ত্রণের ত্রুটি মার্জনীয়।’ চিঠির শেষে আবার যুক্ত হয়েছে, ইতি, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত।
আসলে তাদের সিনেমা আসছে বাংলার হিট জুটির। তাদের সিনেমা প্রচারেই এমন উদ্যোগ নিয়েছেন সিনেমা কর্তৃপক্ষ। যেখানে বিয়ের পিঁড়িতে বসবে তাদের চরিত্ররা। পরিচালনায় সম্রাট। তারই প্রচারে গমগম করছে সোমবার সকাল। কিন্তু এর বেশি কিছু এখন খোলসা করা যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছেন কলাকুশলীরা।

Sharing is caring!