Sharing is caring!

প্রথম চারম্যাচ টানা পরাজয়। সিরিজ তো আগেই খুইয়েছে। এবার শেষ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার সামনে মিশন ছিল লজ্জা এড়ানোর। সেই মিশনে আপাতত সফল দাসুন সানাকার দল। একেবারে শেষ মুহূর্তে এসে ৫ উইকেটের ব্যবধানে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়েছে সফরকারী লঙ্কানরা।
মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেট হারিয়ে ১৫৪ রান করেছিল অস্ট্রেলিয়া। জবাবে কুশল মেন্ডিসের ব্যাটে ভর করে ১ বল হাতে রেখে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় শ্রীলঙ্কা।
মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১২ রানে দুই ওপেনার অ্যারন ফিঞ্চ ও গ্লেন ম্যাকডারমটকে হারায় স্বাগতিক দল। গ্লেন ম্যাক্সওয়েল ও জশ ইংলিসের ৪৩ রানের জুটিতে প্রাথমিক বিপর্যয় এড়িয়ে লড়াইয়ে ফেরে অস্ট্রেলিয়া।
দলীয় ৫৫ রানে ইংলিস ফেরেন ২০ বলে ২৩ করে। ম্যাক্সওয়েলকেও ফিরতে হয় ২৯ রানে।
শেষদিকে ম্যাথিউ ওয়েডের ২৭ বলে ৪৩ রানের ঝড়ো ইনিংসে ভর করে ৬ উইকেটের খরচায় ১৫৪ রানের পুঁজি নিয়ে মাঠ ছাড়ে অস্ট্রেলিয়া।
শ্রীলঙ্কার হয়ে লাহিরু কুমারা ও দুসমন্ত চামিরা নেন দুটি করে উইকেট। চামিকা করুনারতেœ ও প্রাভিন জয়াউইক্ররামার ঝুলিতে যায় একটি করে উইকেট।
জবাবে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের চতুর্থ ওভারে পাথুম নিসাঙ্কা ও অভিষিক্ত কামিল মিসরাকে হারিয়ে ব্যাকফুটে চলে যায় লঙ্কানরা।
দলকে সেখান থেকে উদ্ধার করেন কুশাল মেন্ডিস। উইকেটের অন্য প্রান্তে কেউ থিতু হতে না পারলে একা চালিয়ে যান লড়াই।
তার অপরাজিত ৫৮ বলে ৬৯ আর চারিথ আসালাঙ্কার ৯ বলে ২০ রানের টর্নেডো ইনিংসে ভর করে ৫ উইকেট হারিয়ে অধরা জয় বাগিয়ে নিয়ে মাঠ ছাড়ে শ্রীলঙ্কা।
এতে করে ৫ ম্যাচ সিরিজ ৪-১ ব্যবধানে জিতেছে অস্ট্রেলিয়া। ম্যাচসেরা হয়েছেন মেন্ডিস। আর সিরিজ সেরা গ্লেন ম্যাক্সওয়েল।

Sharing is caring!