Sharing is caring!

কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, নিত্যপণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণে আরো কঠোর হবে সরকার। সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর খামারবাড়িতে জাতীয় সবজি মেলার উদ্বোধন শেষে এ কথা বলেন তিনি।
করোনা নিয়ন্ত্রণে থাকায় মেলার প্রথম দিনই উপস্থিতি ছিল দর্শনার্থীসহ কৃষি সংশ্লিষ্টদের। তবে বরাবরের মতোই এবারও কৃষক শূন্য মেলা বলছেন অনেকে।
কৃষির সমৃদ্ধি টেকসই করতে সরকারের নানা পদক্ষেপ আর কৃষকের আন্তরিকতায় বাংলাদেশ সবজি উৎপাদনে বিশ্বে তৃতীয়। যার প্রতিচ্ছবি জাতীয় সবজি মেলা-২০২২। রাজধানীর খামারবাড়ি কেআইবি চত্বরে আয়োজিত এবারের মেলায় দেখা মিলেছে দেশিয় নতুন প্রজাতির পাশাপাশি বিদেশি নানা জাতের সবজির। কিন্তু পরিসংখ্যান আর প্রদর্শনী চিত্র উৎপাদনে ইতিবাচক সাড়া দিলেও বাস্তবে সবজির দাম এখনও আসেনি হাতের নাগালে।
তবে সোমবার তিন দিনব্যাপী সবজি মেলার উদ্বোধন করে কৃষিমন্ত্রী বলেন, বাজারের কোথায় কারসাজি হচ্ছে তা খুঁজে বের করতে হবে। দাম নিয়ন্ত্রণে আরও কঠোর হবে সরকার।
ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, বাজারকে আরো নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। এখানে সরকারকে ভূমিকা রাখতে হবে। সামাজিক সমস্যাগুলোকে কঠোর হাতে দমন করতে হবে।
এদিকে করোনা নিয়ন্ত্রণে থাকায় বেশ উৎসবমুখরভাবেই অংশ নিয়েছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। অনেকে এসে নিচ্ছেন নতুন অভিজ্ঞতা।
মেলা থেকে সুফল পেতে কৃষকদের সম্পৃক্ত করার পরামর্শ আগতদের।
৬ষ্ঠবারের এ আয়োজনে অংশ নিয়েছে সরকারি-বেরসকারি ৫২টি স্টল। দেশে সবজি উৎপাদন যেমন বেড়েছে, তেমনি দেশি-বিদেশি নানা জাতের সবজির সম্প্রসারণ হচ্ছে বাংলাদেশে। আর কৃষরা ঝুঁকছেন উচ্চ মূল্যের সবজি চাষে। তাদের নতুন নতুন সবজি পরিচিতির বড় একটি সহায়ক হয়ে থাকে এসব মেলা। তবে আগামী দিনে নিরাপদ সবজি উৎপাদনই বড় ধরনের চ্যালেঞ্জ বলে মনে করছেন তারা।

Sharing is caring!