Sharing is caring!

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের কারণে অলভিয়া বন্দরে আটকে পড়া জাহাজ ‘বাংলার সমৃদ্ধি’তে রকেট হামলায় নিহত থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর রহমানের মরদেহ আজ দুপুরে ঢাকায় পৌঁছেছে। সোমবার (১৪ মার্চ) দুপুর ১২টায় তার্কি এয়ারলাইনসের একটি কার্গো ফ্লাইটে হাদিসুরের মরদেহ ঢাকায় পৌঁছে। এসময় বিমানবন্দরে তার স্বজনরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে রবিবার (১৩ মার্চ) আবহাওয়াজনিত কারণে ফ্লাইট বাতিল হয়েছিল। রোমানিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত দাউদ আলী গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছিলেন। তিনি জানান, ইস্তাম্বুলে ভারী তুষারপাতের কারণে ঢাকাগামী হাদিসুরের মরদেহবাহী ফ্লাইটটি বাতিল করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়ার প্রেসিডেন্টে ভ্লাদিমির পুতিন ইউক্রেনে সেনা অভিযানের নির্দেশ দেন। এরপর থেকে দেশেটিতে রুশ সেনারা আক্রমণ চালানো শুরু করে। নিরাপত্তার কথা ভেবে ‘বাংলার সমৃদ্ধি’জাহাজটি অলভিয়া বন্দরে নঙ্গর করে থাকে। কিন্তু গত ২ মার্চ ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে আটকে থাকা ‘এমভি বাংলার সমৃদ্ধি’ রকেট হামলার শিকার হয়। ওই সময়ে নিহত হন নাবিক হাদিসুর।

পরদিন ৩ মার্চ জাহাজটি থেকে জীবিত ২৮ নাবিক ও নিহত হাদিসুরের মরদেহ নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয়। এরপর ওই ২৮ নাবিককে ইউক্রেন থেকে মালদোভা হয়ে রোমানিয়ায় নিয়ে যায় সেখানকার বাংলাদেশ দূতাবাস। গত ৯ মার্চ রোমানিয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাসের তত্ত্বাবধানে রোমানিয়ায় অবস্থান করা ২৮ নাবিককে বাংলাদেশে নিয়ে আসা হয়।

Sharing is caring!