শিরোনাম:
ঋণ দিতে দেরি হওয়ায় ম্যানেজারের কক্ষে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যার চেষ্টা বিয়ে ও লন্ডনের লোভ দেখিয়ে ছাত্রলীগ নেত্রীকে ধর্ষণ, মামলার খবরে দেশ ছাড়লেন ছাত্রলীগ নেতা সম্পূর্ণ হলো সোনাগাজী প্রেসক্লাব নির্বাচন বঙ্গবন্ধুর হাতের স্পর্শ পাওয়া নোয়াখালী প্রেসক্লাবের ৫২তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন যুগ্ম-মহাসচিব এ্যানীর সঙ্গে নোয়াখালীতে বিএনপি নেতাকর্মিদের সৌজন্য সাক্ষাত অস্ত্র ঠেকিয়ে কিশোরীকে অপহরণ, সুধারাম থানায় মামলা বাড়ি ফেরা হলোনা আলীর, কারাগারে ঘাতক সিএনজি চালক কবিরহাটে সম্পত্তির বিরোধের জেরে হামলা, আহত ৩ নাম ধরে ডাকা নিয়ে দন্ধ, বন্ধুর ছুরিকাঘাতে বন্ধু খুন মহিষ দেখতে গিয়ে বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু

প্রতারণার অভিযোগ শ্রাবন্তীর বিরুদ্ধে!

নিউজ ডেস্ক
নিউজ ডেস্ক
আপডেটঃ : শনিবার, ৮ এপ্রিল, ২০২৩
প্রতারণার অভিযোগ শ্রাবন্তীর বিরুদ্ধে!

এনকে বার্তা বিনোদন:

 

আবারও বিপাকে ভারতীয় বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। এবার আলোচনায় রয়েছে তার মালিকানাধীন জিম। ভারতের মধ্যমগ্রামের এক মলে ‘দ্য ফিটনেস এম্পায়ার’ নামের একটি জিম খুলেছিলেন তিনি বছর দুয়েক আগে। এবার সেই জিম নিয়ে ঝামেলা গড়াল থানা পর্যন্ত। শ্রাবন্তীর বিরুদ্ধে অভিযোগ, জিম ট্রেনিংয়ের নামে টাকা তুলে জিম বন্ধ করে দিয়েছেন তিনি। যার ফলে বিপাকে পড়েছেন জিম-ট্রেনিরা।

 

হাজার হাজার টাকা দিয়ে ওই জিমে ভর্তি হলেও এখন সেই জিমে ঝুলছে তালা। চলতি বছরের গোড়ার দিকে ওই মাল্টিজিমের তরফে একটি বিজ্ঞাপন বের করা হয়। এমনকি দেওয়া হয় আকর্ষণীয় সব অফার। বলা হয়, বছরে ১৮ হাজার টাকার জায়গায় যদি একবারে সাড়ে সাত হাজার টাকা দেওয়া হয় তবেই জিমে ভর্তি নেওয়া হবে। এ লোভনীয় অফার পেয়ে অনেকেই সেই জিমে ভর্তি হন। কিন্তু অভিযোগকারীদের দাবি, ভর্তি হওয়ার পরেই নাকি তাদের বলা হয়, চার হাজার টাকার বিনিময়ে ব্যক্তিগত ট্রেনার রাখতে হবে। এরই পাশাপাশি হঠাৎ করেই দোল-হোলির জন্য বন্ধ করে দেওয়া হয় শ্রাবন্তীর এ জিম।

 

মধ্যমগ্রাম থানায় জিমের মালিকদের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। অভিযোগপত্রে তারা বলেন, ‘পুরো বছরের জন্য আমরা জিম প্যাকেজের টাকা দিয়ে দিয়েছি। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তা খোলার কোনো লক্ষণ দেখছি না। আমরা আমাদের টাকা ফেরত চাই। আমাদের অনুরোধ আপনারা যদি দয়া করে এ ব্যাপারে অনুসন্ধান করে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেন, তবে ভালো হয়।’

 

অভিযোগপত্রের সঙ্গে জিমে টাকা জমা দেওয়ার বিল থেকে যাবতীয় অফিসিয়াল নথিও জমা দিয়েছেন তারা। এ প্রসঙ্গে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম টিভিনাইন বাংলা যোগাযোগ করেছিল শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে। তিনি বলেন, ‘প্রত্যেকটা জিনিসের একটা সময় থাকে। যারা নাম নথিভুক্ত করেছেন, তারা নিশ্চয়ই সময়মতো সবকিছু পেয়ে যাবেন। নিশ্চয়ই কোনো কারণ আছে। তার জন্যই এ জিমটা বন্ধ করা হয়েছে। আমি এতটাই আমার কাজ নিয়ে ব্যস্ত যে ওদিকে সময় দিতে পারছি না। কিন্তু যারা যারা টাকা দিয়েছেন, তারা নিশ্চয়ই তাদের টাকা পেয়ে যাবেন।’


এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০