Sharing is caring!

প্রতিবেদকঃ
নোয়াখালীর চাটখিলে শ্বশুরের উপর জামাইয়ের নেতৃত্বে রক্তাক্ত হামলার ঘটনা ঘটেছে। এই হামলায় শ্বশুর মিজানুর রহমান মারাত্নক আহত হয়ে চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
জানা যায়, ২০১৮ সালের ৩ মার্চে চাটখিল বাজারের ব্যবসায়ী উপজেলার বদলকোর্ট গ্রমের মিজানুর রহমানের মেয়ে মেহেরুন্নেছা সুমাইয়ার সাথে উপজেলার মোহাস্মদপুরের নুরুল ইসলামের ছেলে মাঈন উদ্দিনের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই যৌতুকের জন্যে স্বামী মাঈন উদ্দিন ও তার পরিবারের লোকজন সুমাইয়ার উপর নানা ধরনের নির্যাতন করতো।  এই নিয়ে বেশ কয়েকবার শালিসী বৈঠক এবং আদালত পর্যন্ত গড়িয়ে অমিমাংসিত থাকে। বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে মিজানুর রহমান ও তার স্ত্রী তাদের মেয়ে সুমাইয়াকে নিয়ে মোহাম্মদপুরে তাদের এক স্বজনের বাড়ী থেকে ধাওয়াত শেষে নিজেদের বাড়ী ফেরার পথে জামাই মাঈন উদ্দিন ও তার দুই ভাইয়ের নেতৃত্বে কয়েকজন তাদের গতিরোধ করে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে শ্বশুর মিজানুর রহমানকে মারাত্নক আহত করে এবং শাশুড়ী মারধর করে।
পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।
মোহাম্মদপুর ইউপির চেয়ারম্যান শহিদ উল্যাহ বলেন, মিজানুর রহমানের মেয়ে ও জামাইকে নিয়ে অনেক শালিস বৈঠক করেও তার জামাই মাঈন উদ্দিনের অসহোগীতায় তা সফল হয়নি।
চাটখিল থানার ওসি আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Sharing is caring!