Sharing is caring!

সাহেদ সাব্বির, ফেনী:

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার বগাদানা ইউনিয়নে ত্রাণের জন্য বিক্ষোভ করেছে এলাকাবাসী। সোমবার সকাল ১০টা থেকে ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড পাইকপাড়া গ্রামে ত্রানের জন্য এই বিক্ষোভ করে এলাকাবাসী। ইউপি চেয়ারম্যান ও স্থানীয় মেম্বার সেলিমের বিরুদ্ধে এই বিক্ষোভ হচ্ছে।

ইউপি চেয়ারম্যানের সাথে স্থানীয় মেম্বার সেলিমের মানসিক দূরত্ব থাকায় পাইকপাড়ায় কোন ত্রাণ সহায়তা পায়নি বলে জানিয়েছে বিক্ষুব্ধ এলাকাবাসী।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, তারা ৪নং ওয়ার্ড পাইকপাড়া গ্রামে স্থায়ী বাসিন্দা। করোনার জন্য দীর্ঘদিন ধরে তারা বেকার হয়ে পড়ে থাকলেও কোন ত্রাণ সহায়তা পাচ্ছেন না। সরকার দেশে জুড়ে অনেক খাদ্য সহায়তা দিলেও কোন ধরণের সাহায্য পান নি তারা। অন্য এলাকায় সবাই কিছু খাবার পেলও তারা পায় নি, না খেয়ে আছেন। এতে তাদের পরিবার মানবেতর জীবনযাপন করছে। চেয়ারম্যান-মেম্বার এখন পর্যন্ত কেউ খোঁজ নিতেও আসে নি।

এলাকার আটোরিক্সা চালকেরা বলেন, দীর্ষ ২মাস ধরে ঠিক মতো গাড়ি চালাতে পাচ্ছি না, টাকা-পায়সা কিছু নেই ঘরে খাবার নেওয়ার মতো। জনপ্রতিনিধিরা দেখা পর্যন্ত করে নি আরোকিছু বললে মারার হুমকি দামকি দেয়। ঘরে খাবার নেই আমরা এখন কোথায় যাবো?

এবিষয়ে মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে বগাদানা ইউপি চেয়ারম্যান ইসহাক খোকন ক্ষোভের বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন।

সোনাগাজী উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি জামাল উদ্দিন ছোট জামাল বলেন, বগাদানায় সরকারি ত্রানের পাশাপাশি সাংসদ নিজাম উদ্দিন হাজারী প্রদত্ত ত্রান এবং বিভিন্ন ব্যাক্তি ও সংস্থার পক্ষ থেকে ত্রান বিতরণ হয়েছে। ঠিক কি কারনে পাইকপাড়ার মানুষ ত্রান পাননি তা বলতে পারছিনা।

সোনাগাজী উপজেলা নির্বাহী অফিসার অজিত দেব বলেন, বগাদানার এলাকাবাসী কাছ থেকে কোন অভিযোগ পায় নি, বিক্ষোভ না করে আমার কাছে জানালেই ব্যবস্থা নিতাম। যারা ত্রান পায়নি তাদেরকে দ্রুত ত্রান প্রদান করার জন্য চেয়ারম্যান কে বলেছি।

Sharing is caring!