Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধি :

নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলার ৩নং ধানসিড়ি ইউনিয়নের নলুয়ায় বাড়িঘর দখল, লুট ও সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় দোষিদের বিচারের দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন ঘটনায় আহত মোজাম্মেল হোসেন।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টার দিকে নোয়াখালী জেলা প্রেস ক্লাবের সহিদ উদ্দিন এস্কান্দার কচি মিলনায়তনে এ সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

লিখিত বক্তব্যে মোজাম্মেল হোসেন জানান, স্থানীয় চেয়ারম্যান আবদুল মুন্নাফের ইন্ধনে গ্রীস প্রবাসী নুর আহম্মদ বিভিন্ন সময় আমার খরিদ করা ১ একর ৫৪ শতাংশ জমি দখলের চেষ্টা করে আসছিলো। এ বিষয়ে নোয়াখালী অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মামলার প্রেক্ষিতে আদালত ১৪৪ ধারা জারি করেন। অন্যদিকে আমি জেলার দেওয়ানী আদালতে স্থায়ী নিষেধোজ্ঞা মামলা দায়ের করি। কিন্তু আদালতের আদেশ অমান্য করেই নুর আহম্মদ পক্ষে স্থানীয় ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের ছেলে জুয়েলের নেতৃত্বে স্থানীয় আবুল কাসেম, ফয়েজ আহম্মদ, মাইন উদ্দিন সাদ্দাম, তোফায়েল, সুমন, রুবেল, তৌছির, পিন্টু, নুরুল হক’সহ এক থেকে দেড়’শ জন ভাড়াটে সন্ত্রাসী গত শনিবার অতর্কিত ভাবে আমার বাড়িতে সশস্ত্র হামলা চালায়। হামলায় আমি ও আমার স্ত্রী, শ্বশুরসহ পরিবারের মোট ৭জন আহত হই।

এসময় তারা ঘর বাড়ি ভাংচুর, লুটপাট করে সবকিছু নিয়ে যায়। ঘরের ব্যবহৃত জিনিসপত্র, লেপ তোষক এমনকি পবিত্র কোরআন শরিফও পানিতে ফেলে দেয়। বাড়ির আশপাশের ফলজ ও বনজ গাছ গাছালি কেটে ফেলে। বর্তমানে নি:স্ব অবস্থায় খোলা আকাশের নিচে পরিবারের লোকজন বসবাস করছে।

এ ঘটনায় কবিরহাট থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি জানান তিনি মোজাম্মেল হোসেন।

Sharing is caring!