Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

 

নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতকরণ প্রকল্পের অধীনে স্বাস্থ্য কর্মী নিয়োগের নামে প্রতারণার অভিযোগে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আটককৃত, নিজাম উদ্দিন (৪৫) হাতিয়া পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের মাকছুদুর রহমান’র ছেলে। বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) বিকালের দিকে হাতিয়া নিউ মার্কেট সংলগ্ন হাজী মাইন উদ্দিন ম্যানশন থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।

জানা যায়, দীর্ঘদিন থেকে এ প্রতারক চক্র হাতিয়া উপজেলা সদরে একটি অফিস নিয়ে তাদের অবৈধ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। ইতোমধ্যে তারা বাংলাদেশ সরকারের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে ডিএমসিসিএলএর অর্থায়নে এমএমসি বাস্তবায়নাধীন সুস্বাস্থ্য নিশ্চিতকরণ প্রকল্পের অধীনে ৫টি পদে প্রায় ৬’শ কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে।

পরবর্তীতে আবেদনকারীদের লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার শেষে কথিত যোগ্য প্রার্থীদেরকে নিয়োগ পত্র প্রদান করেন। নিয়োগ পত্র গ্রহণ করার সময় প্রার্থীদের কাছ থেকে জামানত হিসাবে জনপ্রতি ২হাজার ৫শ টাকা আদায় করে। এ বিষয়ে অভিযোগ পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বৃহস্পতিবার বিকালে ওই কার্যালয়ে অভিযান পরিচালনা করেন।

এ সময় কোন বৈধ কাগজ পত্র দেখাতে না পারায় প্রতারক নিজাম উদ্দিনকে আটক করে হাতিয়া থানায় সোপর্দ করা হয়।
এ বিষয়ে হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রেজাউল করিম জানান, আটক প্রতারক স্থানীয় লোকজনকে প্রতারণার মাধ্যমে নিয়োগ দিয়ে অনেক টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

ইতোপূর্বে তাকে এ ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছিল। কিন্তু প্রতারক চক্র তাদের অবৈধ কার্যক্রম অব্যাহত রাখায় তাকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় হাতিয়া থানায় একটি প্রতারণার মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Sharing is caring!