Sharing is caring!

এনকে বার্তা ডেস্ক:

দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২২৮ জনে।এই সময়ের মধ্যে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৮৭ জন। এ নিয়ে সর্বমোট আক্রান্ত ১৪ হাজার ৬৫৭ জন। এছাড়া নতুন করে ২৩৬ জনসহ মোট ২ হাজার ৬৫০ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন।

আজ রোববার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত স্বাস্থ্য বুলেটিনে এসব তথ্য জানানো হয়। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা ব্রিফিংয়ে যুক্ত হয়ে এসব তথ্য জানান।

তিনি ৩৬টি ল্যাবরেটরিতে নমুনা পরীক্ষার তথ্য তুলে ধরে জানান, করোনাভাইরাস শনাক্তে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও পাঁচ হাজার ৬৪২টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। আগের কিছু মিলিয়ে পরীক্ষা করা হয় পাঁচ হাজার ৭৩৮টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে মোট নমুনা পরীক্ষা করা হলো এক লাখ ২২ হাজার ৬৫৭টি। নতুন নমুনা পরীক্ষায় আরও ৮৮৭ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এটি ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ হাজার ৬৫৭ জন। আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছেন আরও ১৪ জন। ফলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২২৮-এ। আর গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও ২৩৬ জন। সব মিলিয়ে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন দুই হাজার ৬৫০ জন

করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে সবাইকে ঘরে থাকার এবং স্বাস্থ্য অধিদফতর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ-নির্দেশনা মেনে চলার অনুরোধ জানানো হয় বুলেটিনে।

এর আগে শনিবার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিল ৬৬৩ জন, মৃত্যু হয় ৮ জনের। গতকাল নমুনা সংগ্রহ হয়েছে ৬ হাজার ৩৮২টি। নমুনা পরীক্ষা করা হয় ৫ হাজার ২৪৭টি। এই সংগৃহীত নমুনা থেকে শনাক্ত রোগী পাওয়া যায় ৬৬৩ জন। এ পর্যন্ত করোনাভাইরাসে শনাক্ত হয়েছে ১৩ হাজার ৭৭০ জন। সুস্থ হয়েছে ১৩০ জন। মোট সুস্থ হয়েছে ২ হাজার ৪১৪ জন।

এক নজরে বাংলাদেশের করোনাচিত্র:

মোট নমুনা পরীক্ষা: ১ লাখ ২৩ হাজার টি।
মোট আক্রান্ত: ১৪ হাজার ৬৫৭ জন।
মারা গেছেন : ২২৮ জন।
মোট সুস্থ: ২ হাজার ৬৫০ জন।
করোনাভাইরাস সংক্রান্ত যেকোনো তথ্যের জন্য সরকার ইতোমধ্যেই একটি বিশেষ ওয়েবসাইট (www.corona.gov.bd) চালু করেছে।

এদিকে, ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যমতে, শনিবার বাংলাদেশ সময় দুপুর ২টা পর্যন্ত বৈশ্বিক এ মহামারিতে সারা পৃথিবীতে ৪১ লাখ ৩ হাজার ৫৩৭ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে ১৪ লাখ ৪৩ হাজার ১৯৭ জন সুস্থ হয়ে উঠলেও প্রাণ গেছে ২ লাখ ৮০ হাজার ৪৭০ জনের।

সবচেয়ে বেশি প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে যেসব দেশে:

যুক্তরাষ্ট্র: ৮০ হাজার ৪০ জন।
যুক্তরাজ্য: ৩১ হাজার ৫৮৭ জন।
ইতালি: ৩০ হাজার ৩৯৫ জন।
স্পেন: ২৬ হাজার ৪৭৮ জন।
ফ্রান্স: ২৬ হাজার ৩১০ জন।
ব্রাজিল: ১০ হাজার ৬৫৬ জন।
বেলজিয়াম: ৮ হাজার ৫৮১ জন।
জার্মানি: ৭ হাজার ৫৪৯ জন।
ইরান: ৬ হাজার ৫৮৯ জন।
নেদারল্যান্ডস: ৫ হাজার ৪২২ জন।

Sharing is caring!