Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

 

 

সরকারি ত্রাণ বিতরণকালে নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলায় হামলার ঘটনা ঘটেছে। বুধবার (৫ মে) সকাল পৌনে ১০টার দিকে হাতিয়া ডিগ্রি কলেজের আফাজিয়া ক্যাম্পাসে এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

হামলাকারীরা স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বাংলাদেশ কুঠির হাতিয়ার সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান মঞ্জুকে বেধড়ক মারধর করে মুঠোফোন ও টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

হামলার শিকার মঞ্জু জানান, নোয়াখালী জেলা প্রশাসকের বরাদ্ধকৃত ৬শত কেজি চাউল হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে হাতিয়া ডিগ্রি কলেজ ক্যাম্পাসে বিতরণের সময় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বাংলাদেশ কুঠির হাতিয়ার শাখার নেতৃবৃন্দ ভলান্টিয়ারের দায়িত্ব পালন করছিল । এর আগে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটি ইউএনওর নির্দেশে ওই ত্রাণ বিতরণের জন্য জনপ্রতি ১০ কেজি করে ৬ শতাধিক লোকের তালিকা তৈরী করে। এ ঘটনায় কতিপয় ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্য ক্ষুদ্ধ হয়। আজ সকালে ত্রাণের চাল বিতরণকালে ক্ষমতাসীন দলের স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা রুবেল ও ইউনুছের নেতৃত্বে ১৫-২০জনের একটি সংঘবদ্ধ দল হামলা চালায়। এক পর্যায়ে আমাকে জোরপূর্বক ধরে নিয়ে মারধর করে মুঠোফোন ও টাকা ছিনিয়ে নেয় হামলাকারীরা।

যদিও হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো.ইমরান হোসেন হামলার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন, একটু ভুল বুঝাবুঝি হয়েছে। পরে সব ঠিকঠাক হয়ে গেছে। এ সময় তিনি ব্যস্ততার কথা বলে পরে কথা বলবেন বলে ফোন কেটে দেন।

Sharing is caring!