Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

 

 

পাওনা টাকা চাওয়ায় নোয়াখালীর চাটখিলে এক রাজ মিস্ত্রীকে কুপিয়ে রাস্তায় পেলে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।
ভুক্তভোগী বেলায়েত হোসেন (৩০), লক্ষীপুর জেলার রামগতি উপজেলার চর পোড়া কাঁচা গ্রামের মো.ফারুকের ছেলে। সে দীর্ঘদিন থেকে চাটখিল পৌরসভা এলাকায় বসবাস করে আসছে।

শুক্রবার (৭ মে) রাত ৯টার দিকে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেওয়ার পর উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়নের সাতরা পাড়ার ওসমান আলী চৌকিদার বাড়ির সামনে থেকে তাকে উদ্ধার করে পুলিশ।

ভুক্তভোগীর মামা লিটন জানায়, বেলাল পেশায় একজন রাজমিস্ত্রী। সে রাসেল নামে এক ঠিকাদারের কাছে কাজের টাকা পাওনা ছিল। ওই ঠিকাদার গতকাল বৃহস্পতিবার তাকে টাকা দিবে বলে উপজেলার পাঁচগাঁও ইউনিয়নের মোস্তান নগরে নিয়ে যায়। কিন্তু সে টাকা না দিয়ে, শুক্রবার টাকা দেওয়ার কথা বলে তাকে পাঠিয়ে দেয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় বেলাল তার বাসা থেকে পাওনা টাকার জন্য রাসেলের উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বেরিয়ে যায়। রাত ৯টার দিকে জানতে পারি স্থানীয় এক বাসিন্দা তাকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেয়। পরে ফোন পেয়ে খিলপাড়া তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক (এএসআই) নুর আলম তাকে উদ্ধার করে চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করে। তিনি আরো জানান, হামলাকারী তার বাম হাতের রগ কেটে দেয় এবং কোমরে ও মাথায় কুপিয়ে গুরুত্বর জখম করে।

চাটখিল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, পুলিশ আহত যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। ভুক্তভোগী যুবক এখনো অচেতন অবস্থায় রয়েছে। তাই এ বিষয়ে বিস্তারিত কোন কিছু জানা যায়নি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত প্রদক্ষেপ নেওয়া হবে।

Sharing is caring!