Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিবেদক:

 

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নে মোবাইলে কার্টুন দেখা নিয়ে ঝগড়ার জের ধরে মায়ের ওপর অভিমান করে এক স্কুল ছাত্রী গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

 

নিহত সুমাইয়া আক্তার (১৫), উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সৌদি প্রবাসী শেখ বাহারের মেয়ে। সে মুছাপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

 

বুধবার (১২ মে) রাত ৯টার দিকে উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের ১নম্বর ওয়ার্ডের শেখ বাহারের নতুন বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

 

স্থানীয়রা জানায়, এশার নামাজের সময় মোবাইলে কার্টুন দেখা নিয়ে সুমাইয়ার সাথে তার ছোট ভাইয়ের ঝগড়া হয়। ওই সময় তার মা এসে দুইজনকে চড় থাপ্পড় দিয়ে শাসন করে । এক পর্যায়ে তার মা শয়ন কক্ষ থেকে চলে গেলে সুমাইয়া মায়ের ওপর অভিমান করে কক্ষের দরজা বন্ধ করে সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। পরে পরিবারের সদস্যরা তাকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি, ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। পরবর্তীতে এ ঘটনায় আইনানুগ প্রদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

Sharing is caring!