Sharing is caring!

সুবর্ণচর, (নোয়াখালী) প্রতিনিধি:

 

নোয়াখালীর দক্ষিণ পশ্চিম অঞ্চলের উপজেলা সুবর্ণচরে এক বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শিশু (১০) ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগে পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (১৮ মে) দুপুরে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই শিশুর ভাই বাদী হয়ে অভিযুক্ত ধর্ষকের বিরুদ্ধে চরজব্বার থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন। এদিকে নির্যাতিত শিশুটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ধর্ষক মো. সোহাগ (২৪) লক্ষীপুর জেলার রামগতি উপজেলার আলেকজেন্ডার পৌরসভার ৫নং ওয়ার্ডের শিক্ষা গ্রামের মো.মজনুর ছেলে।

ভিকটিমের পরিবার ও মামলা সূত্রে জানা যায়, ধর্ষক সোহাগ অটোরিকশাযোগে বিভিন্ন স্থানে ফেরি করে ঔষধ বিক্রি করে। গতকাল সোমবার (১৭ মে) আসামি তার অটোরিকশা নিয়ে উপজেলার বেডির মাথা এলাকায় বিকেল ৪টার দিকে ফেরি করে ঔষধ বিক্রি করতে যায়। ওই সময় ঔষধ ফেরিওয়ালা বুদ্ধি প্রতিবন্ধী শিশুটিকে একা পেয়ে অসৎ উদ্দেশ্য চরিতার্থ করার জন্য পার্শ্ববর্তী খালের ব্রিজের নিচে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় ঘটনাস্থলের পাশ দিয়ে এক প্রতিবেশী যাওয়ার সময় ঘটনাটি দেখতে পেলে ধর্ষক সোহাগ দৌঁড়ে পালিয়ে যায়।

চরজব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.জিয়াউল হক সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, শনিবার সকালে ওই প্রতিবন্ধীর ভাই নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেপ্তারে চেষ্টা চালাচ্ছে।

Sharing is caring!