Sharing is caring!

হিরো আলম নামটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অতি পরিচিত। নানা কারণে তিনি আলোচনায় । সকল আলোচনা- সমালোচনাকে পিছনে ফেলে কাজ করে যাচ্ছেন। ফেসবুকে তার অনুসারীর সংখ্যাও কম নয়। দেড় মিলিয়ন অনুসারী তার অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে। পেইজটি ভেরিফাইডও ছিলো। তবে হঠাৎ করে তার পেইজের নামের পাশের সেই ব্লু-ব্যাজ উধাও!

এ বিষয়ে হিরো আলম বলেন, আমি জানি না আমার সাথে এমটা কেন হলো। হতে পারে কেউ আমার বিরুদ্ধে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের কাছে রিপোর্ট করেছে। আমি নিশ্চিত না হয়ে এ বিষয়ে কিছু বলতে পারছি না। আপনারা জানেন, আমার পেছনে কেউ না লাগলে আমি কারও পেছনে লাগি না।’
তিনি আরও জানান, ‘কেন ব্লু-ব্যাজ সরানো হলো সে বিষয়ে খোঁজ নিচ্ছি। প্রকৃত কারণ জেনে অবশ্যই আপনাদের জানাব। ব্লু-ব্যাজ ফিরিয়ে আনার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।’

এদিকে গত শুক্রবার (১০ ডিসেম্বর) ‘পালালো পালালো মুরাদ হাসান’ শিরোনামে একটি গান নিজের অফিশিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশ করেন হিরো আলম। তার ফেসবুক পেজেও গানটির ভিডিও ভেসে বেড়াতে দেখা যায়। ঘটনাক্রমে সেদিন থেকেই তার পেজের ব্লু-ব্যাজ উধাও! তবে এখনো পেজে নিজের সব কাজের আপডেট দিচ্ছেন হিরো আলম।রোববার (১২ ডিসেম্বর) সকাল ৮টার দিকে এক স্ট্যাটাসে তিনি জানিয়েছেন, নতুন গান ‘মুরাদ হাসানের টেনশন’ আসবে আজ সন্ধ্যা ৭টায়। এই পোস্টের আগে একটি ভিডিওতে গানের রেকর্ডিংয়ের কিছু মুহূর্ত শেয়ার করেন হিরো আলম। সেখানে তাকে গাইতে শোনা যায়, ‘পানি গরগরাইয়া পরতাছে, মুরাদ হাসান কানতেছে, ঢুকতে পারেনি কানাডা…।’

হিরো আলমের ভাষ্য, ‘আইন সবার জন্য সমান। সে মন্ত্রী হোক, এমপি হোক, আইনের ঊর্ধ্বে কেউ না। ডা. মুরাদ হাসান অতিরিক্ত বাড়ার কারণে তার পতন হয়েছে।’

Sharing is caring!