নিজেস্ব প্রতিবেদক:

 

 

নোয়াখালী প্রেসক্লাবের সদস্য, দৈনিক এই বাংলা পত্রিকার জেলা প্রতিনিধি মোঃ লুৎফুল হায়দার আজ দুপুর ১২টায় ব্রেইন স্টক করে মারা যান। ইন্নানিল্লাহে অইন্না ইলাইহে রাজিউন। তার মামা লাবলু জানান, রাত ৩টায় তিনি ব্রেইন স্টক করেন। রাতেই তাকে নোয়াখালীর গ্রামীণ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। রাতভর ডাক্তার না থাকায় সকালে বাধ্য হয়েই তাকে এ্যাম্বুলেন্সে করে ঢাকা নেয়ার পথে সোনাইমুড়িতে তার মুত্যু হয়। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়ে ছিলো ৪৫ বছর। তিনি স্ত্রী ও ২ শিশুকন্যা সন্তান সহ বহু আত্বীয় স্বজন রেখে যান। তার মরহুম পিতা আবুল খায়ের ছিলেন জেলা প্রশাসনের অবসর প্রাপ্ত সার্বেয়ার। আজ বাদ আসর নোয়াখালী পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড মাইজদী গ্রামের নিজ বাসভবনে তার দাপন কার্য সম্পন্ন হবে। হায়দার দুঃসময়ে নোয়াখালী কলেজ ছাত্রলীগের একজন সক্রীয় কর্মী ছিলেন।

 

 

তাঁর মৃত্যুতে নোয়াখালীর সাংবাদিক মহলে শোকের ছায়া নেমে আসে। নোয়াখালী প্রেক্লাবের সাবেক সভাপতি বখতিয়ার শিকদার, সাবেক সভাপতি আলমগীর ইউছুফ, বিএমএসএফ এর নোয়াখালীর যুগ্ন সাধারন সম্পাদক এ আর আজাদ সোহেল, বাংলাদেশ রিপোটার্স ক্লাবের সভাপতি মোঃ ইদ্রিস মিয়া, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সোহেল, ইনডিপেন্ডেট টিভির প্রতিনিধি সাংবাদিক আবু নাছের মন্জু, চ্যানেল টোয়েন্টিফোর টিভির প্রতিনিধি সাংবাদিক সুমন ভৌমিক. নিউজ টোয়েন্টি ফোর টিভির প্রতিনিধি সাংবাদিক আকবর হোসেন সোহাগ নোয়াখালী প্রতিদিনের সাংবাদিক বিধান ভৌমিক, ঢাকা প্রতিদিনের সালাহ উদ্দিন সুমন, কালের কন্ঠের প্রতিনিধি সাংবাদিক সামছুল হাসান মিরণ, জিটিভির প্রতিনিধি সাংবাদিক বিকাশ সরকার, দৈনিক প্রথম আলোর প্রতিনিধি সাংবাদিক মাহবুবুর রহমান, দৈনিক সচিত্র পত্রিকার সম্পাদক আমিরুল ইসলাম হারুন, মানবজমীনের ষ্টাফ রিপোর্টার নাসির উদ্দিন বাদল, সাপ্তাহিক আজকাল পত্রের সম্পাদক সাজ্জাদুল হোসেন, চ্যানেল আইয়ের প্রতিনিধি সাংবাদিক আলাউদ্দিন শিবলু, যমুনা টিভির প্রতিনিধি সাংবাদিক মুতাছিম বিল্লাহ সবুজ, জাতীয় নিশান এর প্রতিনিধি নুর রহমান, এশিয়া বাণী এর প্রতিনিধি আবদুল মোতালেব, এনকে বার্তার ২৪ এর প্রকাশক মো: সেলিম সহ সকল প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিড়িয়ার সাংবাদিক গন তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে তার বিদেহী আত্বার মাগফেরাত কামনা করেন।