Sharing is caring!

নিউজ ডেস্ক:

লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জ থানা থেকে সদ্য বিদায়কৃত পুলিশ অফিসার। বর্তমানে রাঙ্গামাটি জেলায় পুলিশের বিশেষ শাখায় (ডিএসবি) কর্মরত এস.আই জহির উদ্দিন হজের জন্য জমানো দুই লাখ টাকা দিয়ে রামগঞ্জ ও কবিরহাট উপজেলার ১৫০কর্মহীন পরিবারে খাদ্য সামগ্রী ও নগদ টাকা বিতরন করছেন।

মঙ্গলবার ও বুধবার নিজে ও প্রতিনিধির মাধ্যমে গৃহে থাকা পরিবারগুলোর বসতঘরে তা পৌঁছে দিচ্ছেন।

পুলিশ অফিসার জহির উদ্দিন বলেন, পবিত্র হজ পালন করার উদ্দেশ্যে একটি ব্যাংক হিসেব খুলে বেতনের টাকা থেকে একটি অংশ প্রতি মাসে জমা রেখেছি। এই পর্যন্ত দুই লাখ টাকা জমা হয়েছে। দেশে করোনা ভাইরাসে দিনমজুর পরিবারগুলো কর্মহীন হয়ে ঘরে অবস্থান করায় খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। পুলিশের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি কর্মহীন মানুষের খাদ্য সংকটের কথা বিবেচনা করে হজের জন্য জমানো টাকা তুলে মানুষের মাঝে বিতরণ করছি। তবে বিগত সময় আমি যেসব প্রতিবন্ধিদের বসতঘর, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান করে দিয়েছি, যেসব দরিদ্র মেয়েদের বিয়েতে সহযোগীতা করেছি। সেসব পরিবারগুলোকে অগ্রাধিকার দিয়েছি।

 

মানবতার ফেরিওয়ালা নামে পরিচিত পুলিশ অফিসার জহির উদ্দিন আরও বলেন, আল্লাহপাক বাঁচিয়ে রাখলে টাকা জমিয়ে হজে যেতে পারবো। কিন্তু দেশের এ মহামারিতে মানুষের পাশে দাড়াঁনোর সৌভাগ্য হয়তো আর পাবো না। আমার চাকরি জীবনে অনেক ধনকুপের মালিক দেখেছি যারা এখনও পর্যন্ত মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে নিরভ ভুমিকা পালন করছে। আমি তাদের অনুরোধ করবো আপনার অসহায় মানুষের পাশে এসে দাঁড়ান।

Sharing is caring!