Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

 

নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের বসুর হাট পৌর মেয়র আবদুল কাদের মির্জা ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদলের সমর্থকদের সংঘর্ষে গুলিব্ধি হয়ে নিহত সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কিরের জানাযার নামাজের পর পারিবারিক কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়েছে।

রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) রাত সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের স্থানীয় আজগর আলী দাখিল মাদ্রাসা মাঠে তাঁর জানাযার নামাজ সম্পন্ন করা হয়।

পরে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। নিহত মুজাক্কিরের বাবা মাষ্টার নোয়াব আলী (৭৫) এ তথ্য নিশ্চিত করেন।
এদিকে নিহতকে এক নজর দেখার জন্য এবং জানাজায় অংশ নিতে শোকে স্তব্ধ এলাকাবাসীসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার হাজার হাজার মানুষ জানাজায় অংশ গ্রহণ করেন।

কোম্পানীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর জাহেদুল হক রনি জানান, নিহতের জানাজা ও দাফন নির্বিঘ্ন করতে পুলিশ তৎপর ছিল।

উল্লেখ্য, নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের চরফকিরা ইউনিয়নের চাপরাশির হাট বাজারে কাদের মির্জা ও বাদল গ্রুপের সংঘর্ষের ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাত ১১টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিউতে চিকিৎসাধীনঅবস্থায় মুজাক্কির শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

নিহত বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির (২৫), উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ডের নোয়াব আলী মাষ্টারের ছেলে এবং দৈনিক বাংলাদেশ সমাচারের বিশেষ প্রতিনিধি ছিল।

Sharing is caring!