Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

 

নোয়াখালীর চাটখিলে করোনা আক্রান্ত এক গৃহবধূকে তথ্য গোপন করে দাফন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

নিহত গৃহবধূ মরিয়ম বেগম (৪৫), উপজেরার সাহাপুর ইউনিয়নের আলিম উদ্দিন ভূঞা বাড়ির মহসিনের স্ত্রী।

বুধবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টায় চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের করোনা ইউনিটের ফোকাল পারসন ডা.তামজিদ হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এর আগে, গত (১৯ এপ্রিল) উপজেলার সাহাপুর ইউনিয়নের ভূঞা বাড়িতে করোনায় আক্রান্ত ওই গৃহবধূকে তথ্য গোপন করে দাফন করার এ ঘটনা ঘটে।

করোনা ফোকাল পারসন ডা.তামজিদ হোসেন বলেন, মরিয়ম বেগম হার্টের সমস্যাসহ বিভিন্ন রোগে ভূগছিলেন। গত (১৪ এপ্রিল) তিনি চাটখিল উপজেলার ঠিকানায় নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে করোনার নমুনা সংগ্রহ করে এবং (১৫ এপ্রিল) তার করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসে। পরে ডাক্তারদের পরামর্শে তাকে তার স্বজনেরা নোয়াখালী কভিড হাসপাতালে ভর্তি করে। কিন্তু একদিন পর তারা কোভিড হাসপাতাল থেকে কৌশলে বাড়িতে চলে যায়।

গত (১৯ এপ্রিল) ওই গৃহবধূ বাড়িতে মারা গেলে পরিবারের সদস্যরা করোনায় আক্রান্তের তথ্য গোপন করে তাকে (১৯ এপ্রিল) পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করে।

তিনি আরো জানান, করোনায় আক্রান্ত রোগীদের রুটিন ওয়ার্ক হিসেবে ১৪ দিন পর খোঁজ-খবর নেওয়া হয়। রুটিন মাফিক আমরা তার পরিবারের সাথে যোগাযোগ করলে আমরা জানতে পারি ওই গৃহবধূ মারা গেছে। দাফনের ৯দিন পর আমরা এ বিষয়ে জানতে পারি। তবে নিহতের পরিবার দাবি করে তার হার্টেও সমস্যা ছিল। সে হার্ট অ্যাটাকে মারা গেছে।

Sharing is caring!