Sharing is caring!

প্রতিনিধি, হিলি (দিনাজপুর):

 

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে কাঁচা মরিচের আমদানি বেড়েছে। ভারতের বিহার থেকে দিনে গড়ে ছয় থেকে সাত ট্রাক কাঁচা মরিচ আসছে। তবে, আমদানি শুল্ক বেশি হওয়ার কারণে দাম কমছে না বলে জানিয়েছেন আমদানিকারকরা। এই শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে ব্যবসায়ী নেতারা।

দফায় দফায় বন্যার কারণে দেশের বেশিরভাগ এলাকায় পানিতে ডুবে নষ্ট হয়ে গেছে শাক-সবজির ক্ষেত। দেশে উৎপাদিত সবজি চাহিদা পুরুণ করতে না পারায় আমদানি করা হচ্ছে প্রতিবেশি দেশগুলো থেকে।

হিলি স্থলবন্দর দিয়ে কয়েকদিন ধরে বেড়েছে কাঁচা মরিচ আমদানি। ভারতের বিহার থেকে আসা এসব কাঁচা মরিচের প্রতি কেজির জন্য শুল্ক দিতে হচ্ছে প্রায় বাইশ টাকা। এতে চাহিদা পুরুণ হলেও দাম কমছে না বলে জানালেন আমদানিকারকরা।

ব্যবসায়ী নেতারা বলছেন, উচ্চ শুল্ক দেয়ার কারণে দামের ক্ষেত্রে সরাসরি প্রভাব পড়ছে ভূক্তভোগীদের উপর। আরোপিত শুল্ক প্রত্যাহারেরও দাবি জানান তারা।

এদিকে, হিলি বন্দরের পাইকারি বাজারে ৯৫ থেকে ১১০ টাকা কেজি দরে কাঁচা মরিচ বিক্রি হচ্ছে।

গত ১০ দিনে ৫৫০টন কাঁচা মরিচ আমদানির বিপরীতে ১ কোটি ২ লাখ ২৭ হাজার ৮৭২ টাকা রাজস্ব আদায় করেছে হিলি স্থলবন্দর কর্তৃপক্ষ।

আর আমদানি করা এসব কাঁচা মরিচ সরবরাহ হচ্ছে রাজধানী ঢাকা, চিটাগাংসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ।

Sharing is caring!