Sharing is caring!

বিএম সাগর, লক্ষীপুর:

 

লক্ষীপুরে অওয়ামীলীগ নেতার ওপর হামলা, বসত ঘর ভাংচুর ও লুটপাট করেছে সন্ত্রাসীরা, শনিবার ১৭ আগস্ট সকাল ৮.৩০ঘটিকার সময় ৩নং দালার বাজার ইউনিয়ন মাদবেপুর ৩নং ওয়ার্ডে আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলমের ওপর একদল সন্ত্রাসী এই হামলা চালাই, এই সময় সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্র আঘাতে জাহাঙ্গীর আলম ও আব্দুর রহিম গুরুতর আহত হয়। হামলা কারী মতোয়াল্লির বসত ঘর ভাংচুর ও লুটপাট করে নগদ প্রায় ২ লক্ষ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

খবর পেয়ে সদর থানা পুলিশ দালাল বাজার ইউনিয়নটি পুলিশের কর্মকর্তা পুলেন বড়ুয়া গিয়ে জাহাঙ্গীর কে উদ্ধার করে হাসপাতালে প্রেরণ করে। ঘটনাটি ঘটছে আজ শনিবার সকাল ৮.৩০ মিনিটে লক্ষীপুর সদর উপজেলা ৩নং দালাল বাজার ইউনিয়নে মহাদেব পুর গ্রামে ৩নং ওয়ার্ডে আলী রাজা পাটওয়ারী বাড়ীতে। আহত জাহাঙ্গীর আলমের স্ত্রী প্রতিবেদক জানান, আলী রাজা পাটওয়ারী ওয়াকফ স্ট্রেট ভ‚মি জবর দখল করার জন্য আব্দুর রব ও সোহাগ গংরা আরমান , আজাদ, অনিককে ভাড়া করে।

আরমান আজাদ, অনিক ৪০/৫০ উশৃংখল সন্ত্রাসী এনে আজ সকালে ওয়াকফ এস্ট্রেট দখল করতে যায়। এসময় আমার স্বামী বাধা দিলে তারা আমার স্বামীকে লোহার রডদিয়ে আগাত করে। আমার স্বামীকে উদ্ধার করে ঘরে নিয়ে অনিক সহ ২০/২৫ জন সন্ত্রাসী আমার ঘরে ঢুকে আবারো আমার স্বামীকে মারধর করে এই সময় সন্ত্রাসীরা পিস্তল দিয়ে আমার মাথা ঠেক দেয়। এসময় অন্যান্য সন্ত্রাসীরা আমার ঘরের সকল কিছু ভেঙ্গে তছনছস করে ফেলে এবং ঘওে আলমারি ভেঙ্গে নগদ প্রাই এক লক্ষ বিশ হাজার ৫শত আশি টাকাসহ গলায় থাকা ১টি স্বর্ণের চেইন চিনিয়ে নিয়ে যায়। এ বিষয়ে দালাল বাজার বিট পুলিশ কর্মকর্তা এস আই পুলেন বড়–য়া বলেন, ওয়াকফ এস্ট্রেট (মসজিদের)সুপারীকে কেন্দ্র করে জাহাঙ্গীর আলমের ওপর হামলা করে, হামলায় তিনি গুরতর আহত হয়, অভিযোগ পেলে অপরাধিদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

Sharing is caring!