Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

 

পূর্ব বিরোধের জেরধরে নোযাখালীর সোনাইমুড়ীতে জাকির হোসেন সাগর (২০), নামের এক তরুণকে কুপিয়ে মুমূর্ষ অবস্থায় রাস্তায় পেলে গেছে কিশোর গ্যাংয়ের সদস্যরা।

আহত জাকির হোসেন সাগর উপজেলার জয়াগ ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের বাহরকোট গ্রামের পাটোয়ারী বাড়ির ইউছুফ ওরফে লাল মিয়ার ছেলে।

শনিবার (১ মে) বিকেল ৪টায় গণমাধ্যম কর্মিদের কাছে এমন অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী সাগরের পরিবার।

স্থানীয় সূত্র জানায়, পূর্ব বিরোধের জের ধরে শুক্রবার রাত ৯টার দিকে কিশোর বয়সী ১০-১৫ ছেলে সাগরকে বাড়ি থেকে মুঠোফোনে ডেকে নেয়। পরে তারা তাকে জয়াগ ইউনিয়নের বাহরকোট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনে নিয়ে শরীরের গোপনাঙ্গ, কোপালে, হাতে,কব্জিতে,পেটে, পিঠে, পায়ে ও হাতের তালুসহ বিভিন্ন স্থানে ১৪টি কোপ দেয় এবং পিটিয়ে একটি পা ভেঙ্গে দেয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়।

ভুক্তভোগীর পরিবার জানায়, সাগর এখনো অজ্ঞান অবস্থায় আছে। এ জন্য হামলার সাথে সরাসরি জড়িতদের নাম আমরা এখনো জানতে পারিনি। এজন্য তারা এখনো এ ঘটনায় থানায় কোন অভিযোগ দায়ের করতে পারেননি।

সোনাইমুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন জানান, শুনেছি মারামারি হয়েছে। তারা এখনো হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোন লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

Sharing is caring!