Sharing is caring!

ইউক্রেনে হামলা চালানোর পর রাশিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিল ফিফা ও উয়েফা। ইউক্রেনে যুদ্ধ করার জন্য বিশ্ব ফুটবলে রাশিয়াকে একঘরে করে দেওয়ার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রভাবশালী এই দুই সংস্থা। এর ফলে এই বছর কাতার বিশ্বকাপে খেলা হবে না রাশিয়ার। খেলা হবে না ইউরোপীয় ফুটবলেও। সোমবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) উয়েফার সঙ্গে এক যৌথ বিবৃতিতে এ ঘোষণা দিয়েছে ফিফা।খবর-আলজাজিরা।

এদিকে চলতি বছরের শেষের দিকে কাতার বিশ্বকাপের জন্য মার্চে বাছাইপর্বের প্লে অফে খেলার কথা ছিল রাশিয়ার পুরুষদের দল। এ ছাড়া নারী দল জুলাইয়ে ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিতব্য ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য কোয়ালিফাই করেছে। এ ঘোষণা ইউরোপীয় প্রতিযোগিতায় সম্পৃক্ত রাশিয়ান ক্লাবগুলোকেও ক্ষতিগ্রস্ত করবে। ফুটবলের বৈশ্বিক ও ইউরোপীয় নিয়ন্ত্রক সংস্থা এক বিবৃতিতে জানায়, ফিফা ও উয়েফা আজ একসাথে সিদ্ধান্ত নিয়েছে সব রাশিয়ান দল-হোক জাতীয় প্রতিনিধি দল কিংবা ক্লাব দল, পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ফিফা এবং উয়েফার উভয় প্রতিযোগিতায় রাশিয়া নিষিদ্ধ থাকবে।

আগামী ২৪ মার্চ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্লে অফ সেমিফাইনালে পোল্যান্ডের সঙ্গে খেলার কথা ছিল রাশিয়ার। ফাইনালে জায়গা পেতে ২৯ মার্চ সুইডেন বা চেক প্রজাতন্ত্রের মুখোমুখি হতে পারত দেশটি। কিন্তু তাদের তিন সম্ভাব্য প্রতিপক্ষ জানিয়েছিল তারা ম্যাচ বর্জন করবে। এর আগে সোমবার ইন্টারন্যাশনাল অলিম্পিক কমিটি (আইওসি) সব আন্তর্জাতিক ক্রীড়া সংগঠনগুলোর কাছে আর্জি জানিয়েছিল, রাশিয়া এবং বেলারুশের খেলোয়াড়, কর্মকর্তা এবং দলগুলোকে যেখানে যত দূর সম্ভব যেন বহিষ্কার করা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতেই রাশিয়াকে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ফিফা এবং উয়েফা।

Sharing is caring!