Sharing is caring!

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ শুরু করার আগেই নিজের পরিবারকে সাইবেরিয়ার ‘ভূগর্ভস্থ শহর’-এর ‘বিলাসবহুল’ গোপন বাঙ্কারে সরিয়ে ফেলেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। আলতাই পর্বতমালার কাছে কোনও একটি জায়গায় উচ্চপ্রযুক্তি সম্পন্ন বাঙ্কারে রাখা হয়েছে প্রেসিডেন্টের পরিবারকে- এমনটাই দাবি করেছেন রাশিয়ারই রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক ভ্যালেরি সলোভের।

তিনি জানিয়েছেন, বিলাসবহুল যে বাঙ্কারে পুতিনের পরিবারকে রাখা হয়েছে, সেটি পরমাণু হামলা থেকে সুরক্ষিত। অর্থাৎ যদি পরমাণু হামলা হয় তবে ওই বাঙ্কারের ক্ষতির কোনও সম্ভাবনা নেই বলেই তিনি জানিয়েছেন।কিন্তু কেন হঠাৎ রাশিয়ায় বসে পুতিনের বিরুদ্ধে মুখ খুললেন অধ্যাপক ভ্যালেরি সালোভে? এমনটা নতুন নয়। এর আগেও তিনি পুতিনের শরীরিক ও মানসিক সমস্যা নিয়ে মন্তব্য করেছেন। তিনি দাবি করেন, রাশিয়ার জনগণকে লুকিয়ে নিজের চিকিৎসা করাচ্ছেন প্রেসিডেন্ট। প্রতিরক্ষা মন্ত্রী সের্গেই শোইগু-র সঙ্গে বিভিন্ন গোপন আচার-অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছেন বলে নেটমাধ্যমে এক ভিডিও বার্তায় দাবি করেন।

মস্কোর আন্তর্জাতিক সম্পর্কের ইনস্টিটিউট (এমজিআইএমও)-এর প্রাক্তন অধ্যাপক ভ্যালেরি সালোভে। যে ইনস্টিটিউটে প্রশিক্ষণ নিতে আসেন ভষিষ্যতের সরকারি গুপ্তচর এবং শীর্ষ কূটনীতিকরা। পুতিনের শারীরিক সমস্যা সংক্রান্ত মন্তব্যের জন্য তাঁর বিরুদ্ধে তদন্ত চলছে। কয়েক মাস আগে অধ্যাপকের বাড়িতে তল্লাশিও চালানো হয়। কিভে রাশিয়ার হামলার পরই নেটমাধ্যমে ফের এক ভিডিও বার্তায় এই দাবি করেছেন ভ্যালেরি সালোভে।সূত্র-আনন্দবাজার।

Sharing is caring!