Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

 

‘মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার, রক্ষা করবো ভোটাধিকার’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নোয়াখালীতে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে চতুর্থ জাতীয় ভোটার দিবস পালিত হয়েছে।

 

এ উপলক্ষে বুধবার (২ মার্চ) সকালে বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালি ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। র‌্যালিটি জেলা প্রশাসনের কার্যালয় হয়ে জেলা শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে আবার জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ে এসে শেষ হয়।

জানা যায়, আগে জাতীয় ভোটার দিবস পালিত হতো ১ মার্চ। ২০১৮ সালের ২ এপ্রিল অনুষ্ঠিত মন্ত্রী পরিষদের বৈঠকে ‘খ’ শ্রেণিভুক্ত দিবস হিসেবে ১ মার্চকে জাতীয় ভোটার দিবস হিসেবে ঘোষণা ও উদযাপনের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়। পরে একই বছরের ৭ এপ্রিল মন্ত্রী পরিষদ বিভাগ থেকে ১ মার্চ তারিখকে ‘জাতীয় ভোটার দিবস’ ঘোষণা করে পরিপত্র জারি করা হয়। কিন্তু পরবর্তীতে ১ মার্চ জাতীয় বীমা দিবস ঘোষণা করে ২ মার্চ জাতীয় ভোটার দিবস পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

 

র‌্যালি শেষে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক দেওয়ান মাহবুবুর রহমান বলেন, ভোটার হওয়া আমাদের অধিকার। ১৮ বছর হওয়া মাত্রই সকলের ভোটার হওয়া উচিত। ভোটার হওয়ার মাধ্যমে রাষ্ট্রের সকল সুযোগ সুবিধা ভোগ করা যায়। আমরা ভোটাধিকার রক্ষার জন্য দায়িত্ব পালন করছি। বাংলাদেশ সরকার ভোটাধিকার রক্ষায় নানান কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন। জন-কল্যাণমুখী রাষ্ট্র গঠনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাজ করে যাচ্ছেন।

 

এসময় সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. মেছবাহ উদ্দিনের সভাপতিত্বে সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. জুলকার নাইনের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ইসরাত সাদমীন, অতিরিক্ত জেলা পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) দীপক জ্যোতি খীসা, সাবেক জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোজাম্মেল হোসেন মিলন, নোয়াখালী কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ কাজী রফি উল্ল্যাহ, সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা মো. আবদুল্লাহ আল মামুন।

 

এসময় নির্বাচন কার্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

Sharing is caring!