Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

 

নোয়াখালীর সদর উপজেলার পূর্ব চরমটুয়া ইউনিয়নের জগতপুর গ্রামের দুই বছরের শিশু পুত্র জাকারিয়া পানিতে ডুবে মারা গেছে খবর পেয়ে নিজের কর্মস্থল লক্ষ্মীপুর থেকে বাড়িতে আসার সময় সড়ক দূর্ঘটনায় মারা গেছেন শিশুটির পিতা মাওলানা আজগর আলী (৩৫)। বাবা ও ছেলের অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

 

গতকাল শনিবার রাতে ঢাকা নেওয়ার পথে মারা যান আজগর আলী। এরআগে দুপুরে নানার বাড়ি কালাদরাপ ইউনিয়ন থেকে পুকুরে ভাসমান অবস্থায় শিশু জাকারিয়ার লাশ উদ্ধার করা হয়।

 

নিহত জাকারিয়া নোয়াখালীর সদর উপজেলার পূর্ব চরমটুয়া ইউনিয়নের জগতপুর গ্রামের আজগর আলীর ছেলে। নিহত আজগর আলী একই গ্রামের মো. ইসমাইল হোসেনের ছেলে। তিনি লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার চর কাদির এলাকার আজহারুল উলুম মাদ্রাসার সহকারি শিক্ষক ছিলেন।

 

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, দক্ষিণ জগতপুর গ্রামের মাওলানা আজগর আলী শিশুপুত্র জাকারিয়া (২) তার নানার বাড়ি কালাদরাপ ইউনিয়নের মাদারবাড়ি এলাকায় মায়ের সাথে বেড়াতে যায়। শনিবার দুপুরে জাকারিয়াকে কোথাও দেখতে না পেয়ে খোজাখুঁজি করে নানার বাড়ির লোকজন। এক পর্যায়ে দুপুর আড়াইটার দিকে জাকারিয়াকে বাড়ির পুকুরে ভাসমান অবস্থায় দেখতে পান তারা। পরে তাকে মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়।

 

বিকেলে সন্তানের মৃত্যুর খবর পেয়ে কর্মস্থল কমলনগর থেকে মোটরসাইকেলযোগে নোয়াখালী আসার পথে আমিন বাজার এলাকায় অটোরিকশার সাথে তার মোটরসাইকেলটির মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলে মারাত্মকভাবে আহত হন তিনি। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। রাতে তার অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা নেয়ার পথে মারা যান তিনি।

 

সুধারাম মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, নিহত মাদ্রাসা শিক্ষকের পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না থাকায় লাশ ময়না তদন্ত ছাড়া পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Sharing is caring!