Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

 

নোয়াখালী কবিরহাট উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে বেআইনী বালু উত্তোলন, কৃষি জমিনের মাটি খনন ও নোয়াখালী খাল পাড়ের জমাট করে রাখা মাটি অবৈধ ভাবে রাতের আধারে অনত্র নিয়ে বিক্রি করার অভিযোগে মাটি খেঁকোদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমান আদালতের অভিযান চালানো হয়েছে।

 

শনিবার রাত ৯টার দিকে কবিরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও এক্সকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ আতিকুল মামুন এ অভিযান পরিচালনা করেন। এসময় সহযোগিতা করেন কবিরহাট থানা পুলিশ।

 

অভিযান চলাকালীন উপজেলার ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের বিডিপি বাজার নামক স্থানে অবস্থিত নোয়াখালী খাল পাড়ের মাটি পাচারের সময় দুজনকে আটক করা হয়। পরে আটককৃত মাটি ব্যাবসায়ী ও পরিবহনকারী দুইজনকে ভ্রাম্যমান আাদালতের মাধ্যমে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

 

ভ্রাম্যমান আদালতের এক্সকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, কবিরহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ আতিকুল মামুন অভিযান ও জরিমানার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আজকে অবৈধ বালু, মাটি ব্যবসায়ী ও পরিবহনকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালানো হয়। এসময় খাল পাড়ের মাটি পাচার এর অপরাধে মাটি ব্যাবসায়ী ও পরিবহনকারীদের ২জনকে জরিমানা করা হয়। তিনি আরও বলেন, উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

 

উল্লেখ্য এর আগে এসকল মাটি খেঁকোদের বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকাশ করায় এবং সংবাদ প্রকাশের পর প্রশাসনের এসকল অভিযানে স্থানীয় সাংবাদিক সেলিমকে একাধিকবার হুমকি/ধমকি দিয়ে আসছে মাটি খেঁকো সেন্ডিকেটের সদস্যরা। এ হুমকির আলোকে সাংবাদিক সেলিম গত ৮জানুয়ারী এসকল হুমকি দাতাদের বিরুদ্ধে কবিরহাট থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) দায়ের করেন। যাহার নং ২৫৫। এর পর গত ১০মার্চ রাতে সাংবাদিক সেলিমের অফিস কক্ষে এসে পুনরায় হুমকি ধমকি দেয়ায় আাবার একটি অভিযোগ দায়ের করেন কবিরহাট থানায়। যাহা তদন্তধীন রয়েছে।

Sharing is caring!