Sharing is caring!

পোশাক না খুলেও ধর্ষণ করা যায় বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির একটি বেঞ্চ। বুধবার (১৬ মার্চ) এক ধর্ষণ মামলার রায়ে মেঘালয় হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির একটি বেঞ্চ এ মন্তব্য করেন।

রায়ে আদালত বলেন, কোনো নারীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে কিংবা জোর করে তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের চেষ্টা করলেই তা ধর্ষণ বলে গণ্য হবে। সেই সময় ওই নারী পোশাক পরে ছিলেন কি না, তাঁর যন্ত্রণা হয়েছিল কি না এসব বিবেচ্য নয়। পোশাক না খুলেও ধর্ষণ করা যায়।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনের তথ্যমতে, ১০ বছর বয়সী এক বালিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে ২০১৮ সালে এক ব্যক্তিকে দশ বছরের কারাদণ্ড দেয় আদালত। এই রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে আবেদন করেন অভিযুক্তের আইনজীবী। আবেদনে বলা হয়, ধর্ষণের সময় মেয়েটি ব্যথা অনুভব করেনি বলে জানিয়েছিল এবং সে সময় সে অন্তর্বাস পরে ছিল। যেহেতু তার অন্তর্বাস খোলা হয়নি, সে যন্ত্রণা অনুভব করেনি, সুতরাং এ ঘটনাকে ধর্ষণ বলে গণ্য করা যায় না।

এরপর বুধবার মেঘালয় হাইকোর্ট রায় ঘোষণার সময় এসব কথা বলেন এবং অভিযুক্ত যুবককে দোষী সাব্যস্ত করে তার কারাদণ্ড বহাল রাখেন। সূত্র : এনডিটিভি

Sharing is caring!