Sharing is caring!

অসুস্থ পরিবারেরর মানুষদের পাশে থাকতে দেশে ফেরার টিকিট করে ফেলা হয়েছিল বাংলাদেশ দলের বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের। কিন্তু দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সিরিজ জয়ের অদম্য ইচ্ছার কারণে সেই টিকিট বাতিল করে শেষ ওয়ানডে খেলতে থেকে যান সাকিব। আর সেই সাকিবের ব্যাটেই এলো বাংলাদেশ ইতিহাসগড়া সিরিজের উইনিং শট। দক্ষিণ আফ্রিকার করা ১৫৪ রানের জবাবে ২৬.৩ ওভারেই জিতে গেছে টাইগাররা। কাগিসো রাবাদার করা ২৭তম ওভারে পয়েন্ট অঞ্চল দিয়ে কাট করে সাকিবই হাঁকান উইনিং শট।

এর আগে বল হাতেও ৯ ওভারে মাত্র ২৪ রান খরচায় ২ উইকেট নিয়ে কার্যকরী অবদান রাখেন তিনি। অথচ দেশে কি না তার দুই সন্তান (ইররাম ও আলায়ন), মা শিরিন আক্তার ও শাশুড়ি হাসপাতালে ভর্তি। বিশেষ করে শাশুড়িকে যেকোনো সময় নিয়ে যেতে হবে দেশের বাইরে। এই অবস্থার মাঝেও দেশের হয়ে সিরিজ জেতার জন্য শেষ ম্যাচ খেলার সিদ্ধান্ত নেন সাকিব। শুধু খেলেননিই তিনি, ব্যাটে-বলে পারফর্মও করেছেন। তাই তো, ম্যাচ শেষে সাকিবকে ধন্যবাদ জানাতে ভোলেননি বাংলাদেশ অধিনায়ক তামিম ইকবাল। তিনি জানিয়েছেন সিরিজ জিততে মরিয়া ছিলেন সাকিব।

তামিমের ভাষ্য, ‘আমার মতে, সাকিবের এখানে আসা ও খেলা অনেক বড় বিষয় ছিল। বিশেষ করে ওর দুই মেয়ে, মা এবং শাশুড়ি হাসপাতালে ভর্তি। তবু সে দেশের হয়ে খেলছে। এটিই ওর ক্যারেক্টার প্রমাণ করে। ও সিরিজটি জিততে চেয়েছিল। আমি ওকে অনেক ধন্যবাদ জানাই। পুরো সিরিজে ও দুর্দান্ত ছিল।’

Sharing is caring!