Sharing is caring!

বল হাতে দারুণ সময় পার করছেন বাংলাদেশি পেস সেনসেশন তাসকিন আহমেদ। সেঞ্চুরিয়নে ইতিহাস গড়া সিরিজ জয়ে ম্যান অব দ্য ম্যাচ ও সিরিজসেরা হয়েছেন তিনি। সিরিজ জয়ের দুই ম্যাচেই বড় অবদান ছিলো তার। একটিতে নিয়েছিলেন তিন উইকেট আরেকটিতে পাঁচ। তিনিই ছিলেন এই সিরিজের সেরা বোলার। এরই মধ্যে আবার সুখবর পান ভারত থেকে। তাসকিনকে আইপিএলে পেতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে সরাসরি ফোন করেন গৌতম গম্ভীর।

জোহানেসবার্গে ওয়ান্ডারার্সের দ্বিতীয় ম্যাচে হারের পর দিনই খবর জানা যায়, আইপিএলের নতুন দল লখনৌ সুপার জায়ান্টস তাসকিনকে দলে নিতে চায়। তাসকিনকে পেতে দলটির মেন্টর সাবেক ভারতীয় অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর সরাসরি বিসিবিকে ফোনও করেছিল সেদিন। তবে দেশের খেলার কথা ভেবে আইপিএলের প্রস্তাবকে না করে দেন তাসকিন। আইপিএলে খেলার স্বপ্ন তাসকিনের দীর্ঘদিনের। সুযোগ পেয়েও আইপিএল না খেলতে পেরে হয়তো মন খারাপ তার। তবে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে দক্ষিণ আফ্রিকাকে বিপক্ষে সিরিজ জয়ের পর তাসকিনে ভাবনায়, এটি আইপিএলের চেয়েও বড় কিছু।

তাসকিনের এই সিদ্ধান্তকে প্রথম থেকে স্বাগত জানিয়ে আসছেন মাশরাফি। এবার তিনি বললেন, তাসকিনকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া উচিত। এমন মন্তব্যের ব্যাখ্যাও দেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক। মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মাশরাফি বলেন, ‘অবশ্যই (পুরস্কার দেওয়া উচিত)। আপনি যদি (জেমস) অ্যান্ডারসন ও (স্টুয়ার্ট) ব্রডের দিকে তাকান, ইসিবি (ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড) কিন্তু তাদেরকে সবসময় ক্ষতিপূরণ দেয়। তাদেরকে এই পুরস্কারটা দেওয়া হয়। যেহেতু তারা আইপিএল না খেলে দেশকে সার্ভিস দিচ্ছে তাদেরকে নূন্যতম পুরস্কার দেওয়া হয়।’

বিষয়টি ক্রিকেটারের উপর ইতিবাচক প্রভাব ফেলে বলে মনে করেন মাশরাফি। ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’ তারকা বলেন, ‘তখন হয় কি! ক্রিকেটারদের ভালো লাগা কাজ করে যে, তার ভাবে বোর্ড আমাদের বিষয়টা দেখছে। তখন টেস্ট ক্রিকেট কেন, যে কোনো ক্রিকেট খেলার জন্য প্রস্তুত থাকে ক্রিকেটাররা।’

Sharing is caring!