Sharing is caring!

চেলসি নিয়ে এমনিতেই তার ওপর অনেক ধকল যাচ্ছে। যুক্তরাজ্যে থাকা সব সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে দেশটির সরকার। এর মধ্যে আছে চেলসিও, ক্লাবটির ওপর আছে নানা নিষেধাজ্ঞা। ব্যক্তিগত এ দুঃসময়েও রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ বন্ধের মধ্যস্ততা করছিলেন রোমান আব্রাহোমভিচ।
কিন্তু তাকেই নাকি বিষপ্রয়োগ করে হত্যা করার চেষ্টা হয়েছে। তিনি একা নন, আরও দুই রাশিয়া-ইউক্রেন মধ্যস্থতাকারীও আক্রান্ত হয়েছেন। চলতি মাসের শুরুতে এ ঘটনা ঘটে বলে জানায় তারা।খবর বিবিসির।
ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের খবর অনুযায়ী, এই মাসের শুরুতে কিয়েভে রাশিয়া ও ইউক্রেনের মধ্যে শান্তি ফেরাতে একটি বৈঠকে যোগ দিয়েছিলেন আব্রামোভিচ। এরপরই তার শরীরে বিষক্রিয়ার প্রভাব স্পষ্ট হয়ে ওঠে। একাধিক লক্ষণ দেখা দিয়েছে শরীরে।
জানা গেছে, রোমান এবং দুই রাশিয়া-ইউক্রেন মধ্যস্থতাকারীর চোখ লাল হয়ে যাচ্ছিল। মুখ ও হাতের ছাল-চামড়া উঠতে শুরু করে। শরীরের একাধিক অঙ্গে অসহ্য যন্ত্রণাও হয়। যদিও বর্তমানে তাদের শারীরিক অবস্থার অনেকটাই উন্নতি হয়েছে। আপাতত তারা শঙ্কামুক্ত। যদিও লক্ষণের কারণ জানা যায়নি স্পষ্টভাবে।
ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে প্রকাশিত খবর বলছে, অনেকের দাবি শান্তি বৈঠক ভঙ্গ করতেই হয়তো ইচ্ছে করেই শরীরে বিষ দেওয়া হতে পারে। কিন্তু এই সমস্ত উপসর্গ কোনো কেমিক্যাল শরীরে প্রবেশ করায় হয়েছে নাকি ইলেক্ট্রোম্যাগনেটিক-রেডিয়েশনের প্রভাবে এমনটা হয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

Sharing is caring!