Sharing is caring!

প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসের পদত্যাগের দাবিতে বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠেছে শ্রীলঙ্কা।
শনিবার (৯ এপ্রিল) দেশটির রাজধনী কলম্বোতে হাজার হাজার মানুষ বিক্ষোভ করেন।
অর্থনৈতিক সংকটে সৃষ্ট অস্থিরতায় রাজাপাকসের পদত্যাগের দাবিতে এদিন শিক্ষার্থী, আইনজীবী, অভিনেতাসহ নানা শ্রেণি ও পেশার মানুষ আন্দোলন রাজপথে জড়ো হন।
আন্দোলনকারীদের একটাই দাবি, রাজাপাকসে ও তার পরিবারের কোনো সদস্য যেন রাষ্ট্র ক্ষমতায় না থাকেন। এ সময় তারা নানা স্লোগান দিতে থাকেন।
এ ছাড়া অনেকেই ‘দুর্নীতিগ্রস্ত রাজনীতিবিদ নয়, রাজাপাকসে পরিবার থেকে শ্রীলঙ্কাকে বাঁচাও’ লেখা সম্বলিত বন্যার নিয়েও রাজপথে নামেন।
দেশটির অর্থনৈতিক পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী বাদে মন্ত্রিসভার সবাই পদত্যাগ করেছেন। একই পথে হেটেছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নরও।
২০২০ সালের শুরুর দিকে শ্রীলঙ্কার বিদেশি মুদ্রার রিজার্ভ ৭০ শতাংশ কমে যায়। এর ফলে দেশটি মুদ্রার মূল্য কমাতে বাধ্য হয়েছে এবং বৈশ্বিক ঋণদাতাদের কাছে সহযোগিতা চেয়েছে। পরিস্থিতি এতোটাই খারাপ যে, সপ্তাহান্তে জ্বালানি তেলের জন্য দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। রান্নার জ্বালানি গ্যাসের দাম এক হাজার ১৫০ রুপি থেকে বেড়ে ৪ হাজার ছাড়িয়েছে।
এ ছাড়া শিশুখাদ্য গুঁড়ো দুধও চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে। অর্থের অভাবে কাগজ ছাপা বন্ধের ফলে কয়েক লাখ শিক্ষার্থীর পরীক্ষা বাতিল করতে বাধ্য হয়েছে সরকার।
খবর আলজাজিরা

Sharing is caring!