Sharing is caring!

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি:

 

 

চলন্ত মোটরসাইকেলে ব্রেইন স্ট্রোক করে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জে এক মোটরসাইকেল চালকের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছে আরো দুই মোটরসাইকেল আরোহী।

 

 

নিহত মো. ওমর ফারুক (৩৩) সুবর্ণচর উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের চরলক্ষী গ্রামের আব্দুল কাদেরের ছেলে। আহতরা হলো, সুবর্ণচর উপজেলার বাসিন্দা মাইন উদ্দিন (২৯), আবদুর রহমান (২০)।

শনিবার দিবাগত রাত সোয়া ১১টার দিকে বসুরহাট-কবিরহাট সড়কের লোহার পোল এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত ফারুক সুবর্ণচর উপজেলায় ভাড়ায় মোটরসাইকেল চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করত। সে শনিবার রাত ৯টার দিকে সুবর্ণচর থেকে চট্রগ্রামের হজরত শাহ মোহছেন আউলিয়ার মাজারের উদ্দেশ্যে মোটরসাইকেল যোগে দুইজন যাত্রী নিয়ে রওনা করে। যাত্রা পথে মোটরসাইকেলটি কবিরহাট-বসুরহাট সড়কের লোহার পোল এলাকায় পৌঁছলে চলন্ত মোটরসাইকেলে হঠাৎ ফারুক ব্রেইন স্ট্রোক করে। এক পর্যায়ে মোটরসাইকেলটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দুর্ঘটনায় পতিত হয়। এতে মোটরসাইকেল আরোহী তিনজনই আহত হয়। স্থানীয় এলাকাবাসী ফারুকসহ তিনজনকে উদ্ধার করে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফারুককে মৃত ঘোষণা করে। খবর পেয়ে কোম্পানীগঞ্জ থানার পুলিশ শনিবার দিবাগত রাত ২টার দিকে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

 

 

কোম্পানীগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রিয়াদুল হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরী করা হয়েছে। মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ফারুক গুরুত্বর আহত হয়নি এবং বাকী দুইজনের আঘাত গুরুত্বর নয়। তবে চিকিৎসকরা প্রাথমিক ভাবে ধারণা করছে সে ব্রেইন স্ট্রোকে মারা যায়। নিহতের পরিবার সূত্রে জানা যায়, সে আগে থেকেই অসুস্থ ছিল। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে আইনগত প্রদক্ষেপ গ্রহণ করবে পুলিশ।

Sharing is caring!