Sharing is caring!

সেনবাগ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি:

 

 

নোয়াখালীর সেনবাগে সাব-রেজিস্ট্রার অফিসের -রেজিস্ট্রার তানিয়া তাহেরের বিরুদ্ধে অনিয়ম, দলিল লিখকদের সঙ্গে অসদাচরণ, ঘুষ দাবি, দলিল লিখকদের সনদপত্র বাতিলের হুমকি প্রদান, লেখকদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রত্যাহারের দাবিতে কর্ম বিরতি শুরু করেছে সেনবাগ দলিল লিখক সমিতি।

 

রোববার (২০জুন) বেলা সাড়ে ১১টার সময় সেনবাগে সাব-রেজিস্ট্রার অফিস সংলগ্ন দলিল লিখক সমিতির অস্থায়ী কার্যলয়ে সেনবাগ দলিল লিখক সভাপতি এম তালেবুজ্জামানের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভায় এই কর্মবিরতি ঘোষণা করা হয়।

 

সভায় লেখকদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রত্যাহার, অফিসের অনিয়ম ও অসদাচারণ বন্ধ না করা পর্যন্ত অনিধিষ্ট কালের কর্ম বিরতি চালিয়ে যাবার ঘোষণা দেয়া হয়। এসময় সমিতির সাধারণ সম্পাদক আইনুল হক বাহাদুর, সাবেক সভাপতি নোয়াব মিয়া, ইউসুপ মজুমদার, সদস্য মোঃ আলী হোসেন রতন ও কাজী হুমায়ুন সহ ভুক্তভোগী সমিতির সদস্যরা বক্তব্য রাখেন।

 

এর আগে গত বৃহস্পতিবার সাব-রেজিস্ট্রারের অসৌজন্যমূলক আচরণ ও নানা অনিয়মের ঘটনায় দলিল লিখক সমিতির কার্যনির্বাহী কমিটি জরুরি সভা ডেকে প্রতিবাদ জানান।

 

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের মার্চ মাসে জেলার কবিরহাট উপজেলার সাব-রেজিস্ট্রার তানিয়া তাহের অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে সেনবাগে সপ্তাহে দু’দিন অফিস করেন। তিনি অফিস কার্যক্রম শুরুর পর থেকে দলিল লিখকদের সঙ্গে দলিল সম্পাদনে শুরু করেন অসদাচরণ, ঘুষ দাবি, দলিল লিখকরা এর প্রতিবাদ করলে তিনি সনদপত্র বাতিলের হুমকি প্রদান করেন।

 

 

সাব-রেজিস্ট্রারের এই সব অভিযোগের বিরুদ্ধে ঘটনার প্রতিকার চেয়ে ভুক্তভোগী দলিল লিখক মো. আলী হোসেন ও কাজী হুমুায়ন ১৬ই জুন মহাপরিদর্শক (নিবন্ধন), আইনমন্ত্রী, সচিবসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এ বিষয়ে সাব-রেজিস্ট্রার তানিয়া তাহেরের বক্তব্য নেওয়ার জন্য তার মুঠোফোনে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেনি।

 

 

এ ব্যাপারে জেলা রেজিস্টার আবদুল খালেকের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, সাব-রেজিস্ট্রার তানিয়া তাহের বিরুদ্ধে অভিযোগ এখনো পায়নি তিনি । কর্মবিরতের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন এটা তারা করতে পারেন। আমার অফিস যথা নিয়মে চলবে।

Sharing is caring!