Sharing is caring!

নোয়াখালী জেলা প্রতিনিধি:

 

 

“ঠোঁট কাটা, তালু কাটা ও দাঁতের মাড়ি কাটা নিয়ে আর দুশ্চিন্তা নয়, বিনামূল্যে চিকিৎসায় এই সমস্যা সম্পূর্ণ ভালো হয়” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আমেরিকার ‘স্মাইল ট্রেন’ এর অর্থায়নে শিশুর হাসি সামাজিক সংস্থার সহযোগীতায় রোগীদের সম্পূর্ণ বিনামূল্যে অপারেশন ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

ক্যাম্প পরিচালনা করেন ঢাকা শাহবাগ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিট, প্রফেসর ডা: মো: আইয়ুব আলী।

 

গত (২৩-২৪শে অক্টোবর) বৃহত্তর (ফেনী-নোয়াখালী-লক্ষীপুর) জেলার ২৯ জন রোগীদের নিয়ে নোয়াখালীর মাইজদী গুডহিল কমপ্লেক্সে এই অপারেশন কার্যক্রম পরিচালনা করেন।

 

এসময় উপকারভোগীরা জানান, এই ঠোঁট কাটা, তালু কাটা ও দাঁতের মাড়ি কাটা চিকিৎসা খরচ অনেক ব্যয়বহুল হওয়ায় ব্যক্তিগত ভাবে আমাদের অপারেশন করা সম্ভব না। তাই এই সংস্থার মাধ্যমে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে চিকিৎসা পেয়ে আমরা খুবই আনন্দ উপভোগ করছি। আমাদের শিশুরা সুস্থ আছে, ভালো আছে। আমরাও দুশ্চিন্তামুক্ত রয়েছি।

 

এসময় ক্যাম্পে সেচ্ছাসেবী হিসেবে মো: আজহার উদ্দিন ও খালেদা আক্তার সার্বিক ভাবে সহযোগীতা করেন।

“স্মাইল ট্রেন” সংস্থার কার্যক্রম ব্যবস্থাপক মোঃ সাফায়াত খান জানান, এটি আন্তর্জাতিক ডোনেট ‘স্মাইল ট্রেন’ এর অর্থায়নে কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। এটি বিশ্বের ৯০ টির অধিক দেশে সেবা দিয়ে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশে শিশুর হাসি সামাজিক সংস্থা ২০০৮ সাল থেকে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

 

আমরা বৃহত্তর নোয়াখালীর মাইজদী গুডহিল কমপ্লেক্স হাসপাতালের সহযোগীতায় ২০১৮ সাল থেকে প্রতি দেড় মাস পরপর প্রায় ৫০০ টির অধিক জন্মগত ঠোঁট কাটা, তালু কাটা ও দাঁতের মাড়ি কাটা শিশুকে সফল ভাবে বিনামূল্যে এই চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছি।

 

তিনি আরো জানান, এদের থাকা, খাওয়া, অপারেশন ওষুধপত্র, যাতায়াত ভাড়া বাবদ’সহ বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা প্রদান করা হচ্ছে। এবং ঠোঁট কাটা রোগীদের সাড়ে ৩ মাস থেকে ৬০ বছরের মধ্যে , তালুকাটাদের ১০ মাস থেকে ৯ বছরের মধ্যে এবং দাঁতের মাড়ি কাটাদের ৭ বছর থেকে ১৫ বছর পর্যন্ত এসময়ের মধ্যে অপারেশন করে থাকি।

 

এছাড়াও নোয়াখালী, ফেনী, চট্রগ্রাম’সহ আরো অন্যান্য জেলাতে এই বিনামূল্যের চিকিৎসা সেবা অব্যাহত রয়েছে।

 

গুডহিল কমপ্লেক্সের জেনারেল ম্যানেজার মো: রইছ উদ্দিন খন্দকার জানান, এই সংস্থার সার্বিক সহযোগীতায় প্রতি দেড় মাস পরপর ক্যাম্পিং এর মাধ্যমে সফলতার সাথে অপারেশন করা হচ্ছে। এবং কোনো জটিল সমস্যায় পড়ি নাই। আশাকরি আল্লাহর রহমতে সকলের সহযোগীতা পেলে এমন অপারেশনের কাজ অব্যাহত থাকবে।

Sharing is caring!