Sharing is caring!

আর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসির ৩০০ কোটি টাকার হোটেল ভেঙে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। স্পেনের কাতালুনিয়া শহরে থাকা ‘মিম সিটগেস’ নামের মেসির ‘ফোর স্টার’ ওই হোটেলটির মূল্য ২৬ মিলিয়ন পাউন্ড। বাংলাদেশি মূল্য প্রায় ৩০০ কেটি টাকা। জানা গেছে, ‘মিম সিটগেস’ নামের ৭৭ বেডরুমের ওই হোটেলটি শহরের নিয়ম অনুযায়ী নির্মাণ না হওয়ায় এই নির্দেশ দিয়েছে আদালত। খবর- দ্যা সান।

মেসির আয়ের অন্যতম বড় উৎস এই হোটেল ব্যবসা। চার তারকা ‘মিম সিটগেস’ হোটেলটি বার্সেলোনায় মেসির বাড়ির খুব কাছেই অবস্থিত। এখানে নিয়মিতই বেড়াতে যেতেন তিনি। স্পেনের দৈনিক এল কনফিডেনশিয়াল জানিয়েছে, এই নির্দেশটি এখনও মুলতবি আছে। এই বিষয়ে তারা মেসি ও তার দলের মন্তব্য নিতে চাইলেও তারা দেননি বলে জানিয়েছে পত্রিকাটি।

কেবল এখানেই নয়, ইবিজা ও মাজুরকাতে ‘মেজিস্টিক হোটেল গ্রুপ’ এর অধীনে হোটেল আছে মেসির। এই গ্রুপের অধীনেই সমুদ্র থেকে ১০০ ফুট দূরে ‘মিম সিটগেসে’ হোটেলে ২০১৭ সালে ৩০০ কোটি টাকা বিনিয়োগ করেন মেসি।

মাঠের বাইরে গত সোমবার রাতে ফ্রান্সে এক বর্ণিল সন্ধ্যায় জিতলেন ক্যারিয়ারের সপ্তম ব্যালন ডি অর। পেছনে ফেলেন বায়ার্ন মিউনিখ তারকা রবার্ট লেভান্ডভস্কিকে। এবারের ব্যালন জিতে মেসি উঠে গেছেন চূড়ায়। আগে থেকেও দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পাঁচবার জেতা ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর চেয়ে একটি বেশি ব্যালন ডি অর ছিল মেসির। এর আগের ছয়বার মেসি এই পুরস্কার জিতেন-২০০৯, ২০১০, ২০১১, ২০১২, ২০১৫ ও ২০১৯ সালে। প্রতিটিই বার্সেলোনায় থাকতে পেয়েছেন। এক বছর বিরতি দিয়ে আবারও জিতলেন এই ট্রফি। এখন পিএসজির খেলোয়াড় তিনি।

Sharing is caring!