Sharing is caring!

শেষ দুই সপ্তাহের চিকিৎসা শেষে হাসপাতাল ছেড়েছেন ব্রাজিল কিংবদন্তি পেলে।
বড় দিনের ঠিক আগে সুখবর পেলেন তিনি। তর্কসাপেক্ষে সর্বকালের সেরা এই সাবেক
ফুটবলার অবশেষে ছাড়া পেয়েছেন হাসপাতাল থেকে।

বৃহদান্ত্রে টিউমার ধরা পড়েছিল তার, চিকিৎসার জন্য আবারও হাসপাতালে ভর্তি
হতে হয়েছিল তাকে। ব্রাজিলের সাও পাওলোর অ্যালবার্ট আইনস্টাইন হাসপাতালে
ভর্তি ছিলেন তিনি। গত বৃহস্পতিবার তাকে বাড়ি ফেরার অনুমতি দিয়েছে
কর্তৃপক্ষ।

গেল ৯ ডিসেম্বর চলতি বছরের সবশেষ কেমোথেরাপির জন্য হাসপাতালে গিয়েছিলেন
পেলে। সেখানে কিছু শারীরিক সমস্যার সৃষ্টি হলে হাসপাতালে রেখে দেওয়া হয়
তাকে। এর আগে চলতি বছরই তার শরীরে কোলন টিউমার ধরা পড়ে, যা গত ৪ সেপ্টেম্বর
এক অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সরিয়ে ফেলা হয় তার শরীর থেকে।

৮১ বছর বয়সী এই সাবেক তারকা হাসিমুখেই হাসপাতাল ছেড়েছেন। মেডিকেল রিপোর্ট
বলেছে, তিনি বর্তমানে স্থিতিশীলই আছেন। চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে যে কোলন
টিউমার ধরা পড়েছিল, তার চিকিৎসা চলতেই থাকবে।

হাসপাতাল ছাড়ার পর পেলে তার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক পোস্ট করেছেন,
যেখানে তিনি মুচকি হাসছেন। ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘এই হাসির ছবিটা অহেতুক
নয়। যেমন আমি আপনাদের কথা দিয়েছিলাম, আমি আমার পরিবারের সঙ্গেই বড় দিন পালন
করবো। আমি আমার বাড়ি ফিরে যাচ্ছি। আপনাদের সব ধরনের খুদেবার্তার জন্য
ধন্যবাদ।’

শেষ কয়েক বছর ধরেই স্বাস্থ্যটা ভালো যাচ্ছে না পেলের। ২০১৫ সালে প্রোস্টেটে
অস্ত্রোপচারের পর থেকেই চলছে এ অবস্থা। ২০১৯ সালে ইউরিনারি ইনফেকশনের
কারণে আবারও তাকে হাসপাতালে যেতে হয়। এদিকে নিতম্বের সমস্যা বহুদিন ধরেই
ভোগাচ্ছে তাকে, যে কারণে স্বাভাবিক চলাচলেও বাধা পড়েছে তার।

চলতি বছর যোগ হয়েছে এই নতুন সমস্যা। রুটিন চেকআপ করতে গিয়ে গেল সেপ্টেম্বরে
তার বৃহদান্ত্রে এক টিউমার ধরা পড়ে। সেটা অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ফেলে
দেওয়া হলেও সেটার ফিরে আসা রুখতে এখন তাকে নিয়মিত কেমোথেরাপির মধ্য দিয়ে
যেতে হচ্ছে। চলতি বছরে যার শেষ কিস্তি নিতেই তাকে এবার যেতে হয়েছিল
হাসপাতালে।

Sharing is caring!