Sharing is caring!

নিজস্ব প্রতিনিধি:

 

নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদী কোর্ট রেলস্টেশনের পাশে সরকার অনুমোদিত বেসরকারি সেবা সংস্থা পিপলস ইম্প্রুভমেন্ট সোসাইটি অব বাংলাদেশের (পিসব) উদ্যোগে ২০টি মাদ্রাসার ১শ’ এতিম ও অসহায় শিশুর মাঝে শীত উপকরণ বিতরণ করা হয়। এ উপলক্ষে আজ ৮ মার্চ মঙ্গলবার সকাল ৯টায় এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের প্রকল্প পরিচালক ও সাধারণ সম্পাদক হাফেজ ইমরান হুসাইন হাবিবী।

তাজবিদুল কুরআন সোবহানিয়া হিফজ মাদ্রাসা ও সুমাইয়া (রা.) মহিলা হিফজ মাদ্রাসার দুই শিক্ষার্থীর কুরআন তেলাওয়াতের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু করা হয়।

ডা. ইকবাল হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন নোয়াখালী ইসলামিয়া কামিল মাদ্রাসার আরবি প্রভাষক আবু নাঈম হাসান, মাইজদীস্থ মাদ্রাসাতুত দ্বীনিয়া ইসলামিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক হাফেজ মাওলানা এনায়েতুল্লাহ ও দৈনিক সুবর্ণ প্রভাত পত্রিকার বার্তা সম্পাদক মো. আসাদুল্যাহ মিলটন প্রমুখ।


এ সময় সংগঠনের কর্মকর্তা-কর্মচারী, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, মাদ্রাসার শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিটি শিক্ষার্থীর হাতে তুলে দেয়া শীত উপকরণগুলোর মধ্যে রয়েছে- একটি তোষক, একটি কম্বল, একটি সোয়েটার, একটি চাদর, একটি বালিশ, একটি বালিশের কভার ও একটি মশারি।

পিপলস ইম্প্রুভমেন্ট সোসাইটি অব বাংলাদেশ (পিসব) কর্তৃপক্ষ সূত্রে জানা যায়, সংগঠনটি ২০১১ সালে স্থাপিত হওয়ার পর থেকে অদ্যাবধি গরিব-দুঃখী অসহায় মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে। করোনাকালে গত দু’বছর তারা প্রায় ১৬ হাজার মানুষের মাঝে ত্রাণ-সামগ্রী বিতরণ করেন এবং এবার শীতার্ত শিক্ষার্থীদের কল্যাণে ৬ হাজার শীত উপকরণ প্রদান করে।

Sharing is caring!