Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ
নোয়াখালী জেলার করোনা পরিস্থিতি ও করনীয় নিয়ে জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির এক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায়  করোনায় মৃত্যুবরণকারী সাংবাদিক ও পুলিশ সদস্যদের জন্য আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়। 
বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসনের সভা কক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। কমিটির সভাপতি ও জেলা প্রশাসকের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় সর্ম্পকৃত স্থায়ী কমিটির সদস্য ও নোয়াখালী-৪ আসনের সাংসদ একরামুল করিম চৌধুরী।
এমপি একরাম বলেন, সাধারণ ছুঁটি বাতিল ঘোষণা হলেও জেলায় সংক্রমণের অবস্থার উপর নির্ভর করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। দোকানপাট বা অফিস আদালতে প্রত্যেকে যেন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। জনগনের  মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করার জন্য কঠোর হতে প্রশাসনকে নির্দেশ দেন তিনি।
এসময় নোয়াখালী আব্দুল মালেক উকিল সরকারি মেডিকেল কলেজ এবং নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের করোনা পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত ল্যাব দুটি তদারকির জন্য জেলা স্বাচিপের সভাপতি ডা. ফজলে এলাহী খাঁন ও সাধারণ সম্পাদক ডা. মাহাবুবুর রহমানকে অনুরোধ করেন। গত কয়েকদিন জেলায় বিদ্যুৎ সমস্যার কারণে করোনা পরীক্ষার ব্যাঘাতের ঘটনায় অসন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি। একইসাথে বিদ্যুৎ বিভাগকে নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ করার নির্দেশ দেন।
পরে এমপি তৃতীয় ধাপে করোনায় মৃত্যুবরণকারী ৭পুলিশ সদস্যের জন্য সাড়ে তিন লাখ এবং ভোরের কাগজের বিজ্ঞাপন নির্বাহী দেবদাস বাড়ৈ, দৈনিক বাংলাদেশ খবরের ফটোগ্রাফার এম মিজানুর রহমান খানের  পরিবারের জন্য এক লাখ টাকা অনুদান প্রদান করেন। এছাড়াও তিনি নোয়াখালীতে অসুস্থ সাংবাদিকদের জন্য আরো দুই লাখ টাকা অনুদান দেন।
সভায় উপস্থিত ছিলেন, জেলা পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান একেএম সামছুদ্দিন জেহান, জেলা স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি ডা. ফজলে এলাহী খাঁন ও সাধারণ সম্পাদক ডা. মাহাবুবুর রহমান প্রমুখ।

Sharing is caring!