নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ
নোয়াখালীতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এবার আব্দুল ওহাব (৬৫) নামের এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। তিনি সেনবাগ উপজেলার সেনবাগ পৌরসভার বাসিন্দা। এ নিয়ে জেলায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে ৫৬জন। এ দিকে গত ২৪ঘন্টায় মৃত ব্যক্তি ছাড়া জেলায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন আরও ২০জন। 
শুক্রবার দুপুরে তথ্যগুলো নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার।
সেনবাগ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মতিউর রহমান জানান, সেনবাগ বাজারের হোটেল ব্যবসায়ী ও পৌরসভার বাবুপুর এলাকার বাসিন্দা আব্দুল ওহাব অসুস্থ থাকায় গত ১২জুলাই হাসপাতালে এসে নমুনা দিয়ে যান। নমুনা পরীক্ষার ফলাফলে ১৪জুলাই ওই ব্যক্তির করোনা পজিটিভ আসে। তার শারীরিক অবস্থা খারাপ হওয়ায় পরিবারের লোকজন তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার মুগদা জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। বুধবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই হাসপাতালে মারা যান তিনি। বৃহস্পতিবার বিকালে স্বাস্থ্য বিধি মেনে তাকে দাফন করা হয়েছে। এনিয়ে উপজেলায় করোনায় মারা গেছেন ৮জন।
জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার বলেন, নতুন করে জেলায় আরও ২০জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। যার মধ্যে সদরে ৫, হাতিয়া ১, বেগমগঞ্জ ৪, সুবর্ণচরে ৩, সোনাইমুড়ী ২ ও কবিরহাট উপজেলা ৫জন রোগী রয়েছে। আক্রান্তদের মধ্যে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ রয়েছেন। জেলায় মোট আক্রান্ত ২৬৫৮জন। যার মধ্যে সুস্থ্য হয়েছেন ১৬৯২ ও আইসোলেশনে রয়েছেন ৯১০জন। মোট আক্রান্তদের মধ্যে সদরে ৭৭৫, সুবর্ণচরে ১৮৫, হাতিয়া ৮০, বেগমগঞ্জে ৭১৮, সোনাইমুড়ীতে ১৪৫, চাটখিলে ১৫১, সেনবাগে ১২২, কোম্পানীগঞ্জে ১৮০ ও কবিরহাটে ৩০২জন।