Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধি :

 

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো.শ্যামল উদ্দিনকে (৩০) চাঁদাবাজির মামলাসহ দুটি মামলায় গ্রেপ্তার করে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

সে সোনাইমুড়ী পৌরসভার ৪নং ওয়ার্ডের ভানুয়া গ্রামের শুয়া বাড়ির আব্দুর রব খোকনের ছেলে।

রোববার (১৮ এপ্রিল) দুপুর ৩টার দিকে পুলিশ তাকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করে। এর আগে একই দিন সকাল ১১টায় উপজেলার সোনাইমুড়ী বাজার থেকে তাকে আটক করে পুলিশ।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী সূত্রে জানা গেছে, শ্যামল ক্ষমতার প্রভাব খাটিয়ে এলাকায় দখল, টেন্ডারবাজি, চাঁদাবাজিসহ মানুষকে জিম্মি করে আর্থিক সুবিধা ভোগ করছিলেন। এ নিয়ে থানায় তাঁর বিরুদ্ধে হত্যার উদ্দেশ্যে মারধরের একটি মামলা এবং একটি চাঁদাবাজির মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি ছিল।

সর্বশেষ গত (১৭ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শ্যামলের নেতৃত্বে উপজেলা সোনাইমুড়ী বাজারের বাদাম মোড় এলাকার পশ্চিম জননী সিএনজি স্ট্যান্ডের ট্যাক্সের টাকা উত্তোলনে নিয়োজিত শ্রমিক দেলোয়ার হোসেনের (৩২) ওপর হামলা চালায়। ওই ঘটনায় দেলোয়ার বাদী হয়ে থানায় শ্যামলসহ সাতজনের বিরুদ্ধে হত্যার উদ্দেশ্যে মারধরের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করেন। এর আগে ২০১৯ সালের একটি চাঁদাবাজির মামলায় সে ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি। ওই চাঁদাবাজি মামলার জিআর নং-২৮.১৯.১৯।

সোনাইমুড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. গিয়াস উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, চাঁদাবাজির মামলাসহ দুটি মামলায় আসামি শ্যামকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Sharing is caring!