Sharing is caring!

নিজেস্ব প্রতিবেদক:

 

নোয়াখালীর কবিরহাট উপজেলার ২নং সুন্দলপুর ইউনিয়নে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সফি উল্যা (৬৫) নামের এক ব্যাক্তিকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই তাজুল ইসলাম ও ভাতিজা মামুন হোসেনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকালে পূর্ব রাজুরগাঁও গ্রামে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এরআগে বুধবার সন্ধ্যায় ওই গ্রামেই এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। নিহত সফি উল্যা একই গ্রামের মৃত আরক আলীর ছেলে।

পুলিশ জানায়, বুধবার সন্ধ্যায় সফি উল্যাহর লিচু গাছ থেকে লিচু পাড়তেছিল তাজুল ইসলামের মেয়ে পুতুল। ঘটনাটি দেখতে পেয়ে তাকে বাধা দেন সফি উল্যা। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুতুলের বাবা তাজুল ইসলাম, ভাই সাইফুল ও মামুনের সাথে বাকবির্তক হয় সফি উল্যার। এক পর্যায়ে তাজুল ইসলামের পরিবারের লোকজনের পিটুনিতে ঘটনাস্থলেই মারা যান সফি উল্যাহ। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বৃহস্পতিবার সকালে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

কবিরহাট থানার ওসি টমাস বড়ুয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় নিহতের মেয়ে বাদী হয়ে তিনজনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত দুইজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অপর আসামাীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

Sharing is caring!