Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিবেদক:

 

 

বর্ষার মৌসুমী উজানে উঠা কৈ মাছ ধরতে গিয়ে একই বাড়ির প্রতিবেশীর হামলায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলায় আহত ব্যাক্তির মৃত্যু হয়েছে।

 

(১লা জুন) মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে বেগমগঞ্জ উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের রাজ্জাকপুরে পূর্ব শত্রুতার জেরধরে এমন হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। নিহত মোঃ বজলুল করিম (৩২) স্থানীয় রাজ্জাকপুরের আতারবাড়ির মৃত আবু তাহেরের ছেলে।

 

ঘটনার দিন বর্ষার মৌসুমী কৈ মাছ ধরতে গেলে মোঃ বজলুল করিমকে তাদের বাড়ির পুকুর পাড়ে রাত ৯টার দিকে একা পেয়ে আসামি মনির ও মহিন দুই ভাই একত্রিত হয়ে নিহতের উপর অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলা চালায়। বেধড়ক মারধর ও কুপিয়ে বাম হাতের আঙুল বিচ্ছিন্ন করে ফেলে রেখে চলে যায়। ঘটনার মুহূর্তে তাদের মা ধারালো ছুরি এনে দিয়ে সন্তানদেরকে হামলার ঘটনায় সহায়তা করে বলে জানা গেছে।

 

মুমূর্ষু অবস্থায় মোঃ বজলুল করিমকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে নোয়াখালী প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে ভর্তি করা হলে ঘটনার ১ দিন পর বুধবার রাত ৯টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোঃ বজলুল করিম (৩২) মৃত্যু হয়।

 

নিহতের বড় ভাই আলি হোসেন (৪১) জানান, আমার নিরপরাধ ভাইকে হত্যার পিছনে খুণীদের বড় ভাই প্রধান মদদ দাতা ইতালি প্রবাসী মানিকের প্রত্যক্ষ হুকুম রয়েছে। তার সরাসরি হুকুমে অপর ভাই মনির ও মহিন দুজনে আমার ভাই মোঃ বজলুল করিম (৩২) এর উপর অতর্কিত সন্ত্রাসী হামলা চালায়, বেধড়ক মারধর করে ও কুপিয়ে আমার ভাইয়ের বাম হাতের আঙুল বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। আমি হত্যাকারিদের ফাঁশি চাই।

 

উক্ত হামলার ঘটনায় বেগমগঞ্জ থানায় একটি মামলা রয়েছে বলেও জানান, নিহতের স্বজনরা।

খবর পেয়ে বেগমগঞ্জ থানা পুলিশ নোয়াখালী প্রাইভেট হাসপাতালে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেন।

Sharing is caring!