Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিবেদক:

 

 

নোয়াখালী কোভিড ডেডিকেটেড হাসপাতালে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। যার মধ্যে দুইজন পুরুষ ও একজন নারী রোগি রয়েছে। এদিকে গত ২৪ঘন্টায় জেলায় আরও নতুন করে ২৫১জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। নতুন শনাক্তের হার শতকরা ৩০ দশমিক ৩৮ভাগ। লকডাউনেও কমছেনা জেলায় শনাক্তের হার গত এক সপ্তাহে শনাক্তের হার ৩০ভাগের ওপরে রয়েছে। লকডাউন কার্যকর করতে পঞ্চম দিনেও জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ১লাখ ৯২হাজার ৪’শত টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

 

বুধবার সকালে করোনায় শনাক্ত ও মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছেন, জেলা সিভিল সার্জন ডা. মাসুম ইফতেখার ও কোভিড হাসপাতালের ইনচার্জ ডা. নিরুপম দাশ।

 

ডা. নিরুপম দাশ বলেন, মঙ্গলবার সকাল থেকে বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত আরও তিনজন করোনা রোগির মৃত্যু হয়েছে। এদিন ১০জন নারীসহ নতুন করে ১৭জন রোগি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১১৪জন রোগি। এদের মধ্যে ৩৫জনের অবস্থা আশংকাজনক, তাদের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। আর সুস্থ্য হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ৪জন রোগি।

জেলা সিভিল সার্জনের তথ্যমতে, জেলার তিনটি পিসিআর ল্যাবে গত ২৪ঘন্টায় ৮২৬টি নমুনা পরীক্ষা করে ৫৭৫জনের নেগেটিভ ও ২৫১জনের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৫হাজার ১০৩জন। যার মধ্যে সুস্থ্য হয়েছেন ৯হাজার ১৬০জন রোগি। নতুন আক্রান্তদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি জেলার সদর উপজেলায় ৭১, বেগমগঞ্জে ৪৯, কবিরহাটে ৩৬ ও কোম্পানীগঞ্জে ২৯জন রোগি রয়েছেন।

 

অপরদিকে স্বাস্থ্য বিধি অমান্য করায় ১৮০জনকে জরিমানা

 

জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের তথ্যমতে, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রোধে দেশ ব্যাপী ১৪দিনের কঠোর লকডাউন সফল করতে জেলার বিভিন্ন স্থানে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের ২২টি দল। এসময় লকডাউনের পঞ্চম দিনে সরকারি বিধি নিষেধ অমান্য করায় ১৮০জনকে ১৭০টি মামলায় ১লাখ ৯২হাজার ৪’শত টাকা জরিমানা করেছে। জেলার গুরুত্বপূর্ণস্থানে বসানো হয়েছে পুলিশের চেক পোস্ট। টহলে রয়েছে সেনাবাহিনী, র‌্যাব ও বিজিবি। লোকজনকে স্বাস্থ্য সচেতন করার পাশাপাশি মাস্ক বিতরণ ও বিভিন্নস্থানে করা হচ্ছে সচেতনতা মূলক মাইকিং।

Sharing is caring!