Sharing is caring!

ডেস্ক রিপোর্ট:

 

বাংলাদেশ দল এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ মিশনে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই হোঁচট খেয়েছে। প্রথম পর্বের বাধা টপকানোর লক্ষ্যে নেমে স্কটল্যান্ডের কাছে হার টাইগারদের। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন দলের এমন হার নিয়ে চিন্তিত নন। তবে দলের তিন সিনিয়র ক্রিকেটার সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম ও অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ব্যাটিং ‘এপ্রোচ’ ও ‘এটিটিউড’ পছন্দ হয়নি পাপনের।

 

সোমবার ওমানে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে পাপন বললেন, ‘হার-জিত নিয়ে আমি চিন্তিত না। যেকোনো দল হারতে পারে, জিততে পারে। বিশেষ করে টি-টোয়েন্টি আরো বেশি আনপ্রেডিক্টেবল। কিন্তু যে জিনিসটা আমাকে আশ্চর্য করেছে এবং কষ্ট দিয়েছে তা হলো দলের খেলার এপ্রোচ ও এটিটিউড- কোনোটাই ঠিক ছিল না, কোনোভাবেই না।’

 

পাপন যোগ করেন, ‘প্রথম ৬ ওভারে সুবিধা কাজে লাগাতে হয়। সেজন্য মারতে হবে, উইকেট পড়বে। কিন্তু ২ উইকেট পড়ার পর আমাদের ব্যাটসম্যানরা যেভাবে ব্যাট করে গেছে, সাকিব-মুশফিক-রিয়াদসহ, সেখানেই তো মনে হয় আমরা ম্যাচটা হেরে গেছি। এভাবে খেলে তো ১৪১ তাড়া করতে পারব না। এটা প্রত্যেক খেলোয়াড় জানে, এভাবে খেললে জিততে পারব না। এই এপ্রোচ ওদের মধ্যে পাইনি যা ঐ সময় দরকার ছিল। কৌশলও ভালো ছিল না।’

 

হারের জন্য ব্যাটসম্যানদের কাঠগতায় তুললেও পরে অভয় দিয়েছেন পাপন। সব ভুলে খেলোয়াড়দের বার্তা দিয়েছেন পরের দুটি ম্যাচ জেতার জন্য। এজন্য সাকিব আল হাসানকে বাড়তি দায়িত্ব নিতে বলেছেন পাপন।

 

পাপন বলেন, ‘আমি বলেছি সবার সাথে বসে কথা বলতে। সাকিবকে আরও বেশি ইনভলব হতে বলেছি খেলোয়াড়দেরকে মোটিভেট করার জন্য। ওদের বলেছি- কোনো অসুবিধা নেই, আমরা পরের দুইটা ম্যাচ ভালোভাবে জিতে কোয়ালিফাই করব। আমাদের সামনের খেলা আরও কঠিন। বাংলাদেশ এই গ্রুপে শক্তিশালী দল তা এখনও বিশ্বাস করি। সহযোগী দলের বিপক্ষে খেলতে গিয়ে এত চিন্তা করতে হবে, এত পরিকল্পনা করতে হবে, এত কষ্ট করতে হবে এই জিনিস দেখার জন্য আমরা প্রস্তুত না।’

Sharing is caring!