Sharing is caring!

আফগানিস্তানের ক্ষমতাসীন গোষ্ঠী তালেবান এবং ইরানের সেনাদের মধ্যে সীমান্ত সংঘর্ষ হয়েছে। তবে এ সংঘর্ষে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। অবশ্য পরে সংঘর্ষের এ ঘটনাকে ‘ভুল বোঝাবুঝি’ বলে উল্লেখ করে উভয়পক্ষ।

ইরান-আফগানিস্তান সীমান্তে তালেবান ও ইরানি বাহিনীর এই সংঘর্ষের বেশ কয়েকটি ভিডিও বুধবার অনলাইনে ছড়িয়ে পড়ে। এসব ভিডিওতে তালেবান যোদ্ধাদেরকে সীমান্তে জড়ো হতে দেখা যায়। একপর্যায়ে গোলাগুলির শব্দও শোনা যায়। অন্য একটি ভিডিওতে দেখা যায়, তালেবানের গুলিবর্ষণের জবাবে কামানের গোলা নিক্ষেপ করছে ইরানি বাহিনী।

ইরানের আধা-সরকারি বার্তাসংস্থা তাসনিম উভয় দেশের এই সীমান্ত সংঘর্ষের তথ্য নিশ্চিত করেছে। ইরানের সিস্তান ভা বালুচিস্তান প্রদেশের হিরমান্দ কাউন্টির শাঘালাক গ্রামের আফগান সীমান্ত এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

তাসনিম জানিয়েছে, ইরান-আফগানিস্তান সীমান্তের ওই অংশে ইরানি ভূখণ্ডে নিরাপত্তার জন্য সীমান্ত দেওয়াল রয়েছে। মাদক ও পণ্য পাচার রুখতেই সীমান্তের ওই অংশে দেওয়াল তৈরি করা হয়।

আলজাজিরার প্রতিবেদন অনুযায়ী, বুধবার কয়েকজন ইরানি কৃষক সীমান্ত দেওয়াল পার হয়ে অপর পাশের কৃষি জমিতে যান। কিন্তু সীমান্ত দেওয়াল পার হলেও সেসময় তারা ইরানি ভূখণ্ডেই ছিলেন এবং সীমান্ত লঙ্ঘন হয়েছে ভেবে তালেবান যোদ্ধারা তাদের ওপর গুলিবর্ষণ করে। জবাবে কামানের গোলাবর্ষণ করে ইরানি বাহিনী।

কিছুক্ষণের মধ্যেই সংঘর্ষ শেষ হয় এবং ইরানি কর্তৃপক্ষ বিষয়টি নিয়ে তালেবানের সঙ্গে আলোচনায় বসে বলেও প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

২০ বছর পর গত ১৫ আগস্ট আফগানিস্তান দখলে নেয় সশস্ত্র গোষ্ঠী তালেবান। এর পর সেপ্টেম্বর মাসের শুরুতে তালেবান অন্তর্র্বতীকালীন সরকারের প্রথম মন্ত্রিসভার ঘোষণা দেয়। অবশ্য বিশ্বের কোনো দেশই এখনো তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি।

এমনকি ইরানও এখন পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেয়নি।

Sharing is caring!