Sharing is caring!

প্রধানমন্ত্রীর শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ. রহমান বলেছেন, বেকার সমস্যা দুরীকরণে দক্ষ জনগোষ্ঠীর বিকল্প নেই। তাই শিক্ষার্থীদের পড়াশুনার ক্ষেত্রে কারিগরী শিক্ষার উপর গুরুত্ব দেয়ার পরামর্শ দেন।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে দেশে ব্যাপক উন্নয়ন হচ্ছে। এই উন্নয়নের রুপকার ছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে উন্নয়নের এ ধারা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে। প্রধানমন্ত্রীর দুরদর্শী নেতৃত্বে গত ১১ বছরে মাথাপিছু আয় ৫০০ ডলার থেকে বৃদ্ধি পেয়ে দুই হাজার ৫৪০ ডলারে দাঁড়িয়েছে। একই সাথে জিডিপি বৃদ্ধি পেয়েছে ৩৫ বিলিয়ন থেকে ৪১০ বিলিয়নে।

তিনি আরো বলেন, শিল্প ও বাণিজ্য ক্ষেত্রে বাংলাদশের অব্যাহত উন্নয়নকে আরও গতিশীল ও সমৃদ্ধ করতে ময়মনসিংহের ব্যবসায়ীদের প্রতি বিনিয়াগের আহবান জানান। সেই সাথে ময়মনসিংহ কৃষি ও মৎস্য জাত পণ্য যেহেতু অগ্রগামী সেই চিন্তা মাথায় রেখে এ অঞ্চলকে অর্থনৈতিক জোন হিসেবে গড়ে তুলা যেতে পরে বলে মত প্রকাশ করেন তিনি।

আজ বৃহস্পতিবার (০৯ ডিসেম্বর) দুপুরে নগরীর শহীদ শাহাবুদ্দিন মিলনায়তনে ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির আয়োজিত ‘ময়মনসিংহ অঞ্চলে শিল্পায়ন সম্ভাবনা-সঙ্কট-সমাধান বিষয়ে’ এক মতবিনিময় সভায় তিনি একথা বলেন। ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি আমিনুল হক শামীমের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ, সংসদ সদস্য নাজিম উদ্দীন আহমেদ, সংসদ সদস্য আনোয়ারুল আবেদীন তুহিন, সংসদ সদস্য ফাহমী গোলন্দাজ বাবেল, সংসদ সদস্য কাজিম উদ্দিন আহমেদ ধনু ও নারী সংসদ সদস্য মনিরা সুলতানা মনি এবং সিটি মেয়র ইকরামুল হক টিটু, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এড. জহিরুল হক খোকা, মহানগর আওয়ামীলীগ সভাপতি আলহাজ এহতেশামুল আলম, জেলা প্রশাসক এনামুল হকসহ প্রশাসনের ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

এরপর বিকেল ৪ টায় নগরীর টাউন প্রাঙ্গনে ময়মনসিংহ সিটি কর্পোরেশনের আয়োজনে প্রধানমন্ত্রীর শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ. রহমানকে নাগরিক সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।

Sharing is caring!