Sharing is caring!

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সার্চ কমিটি যা করছে সবই তামাশা। তারা দেখাচ্ছে, সব দলের কাছে নাম চাওয়া হয়েছে, একাধিক সভা করা হচ্ছে, সবার সঙ্গে কথা বলছে। এগুলো বলে তারা পুনরায় নির্বাচন তাদের নিয়ন্ত্রণে নেবে।
বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।
তিনি আরও বলেন, নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য অনুসন্ধান কমিটির কাছে নাম পাঠানো সম্পর্কে স্পষ্টভাবে বলা হয়, বিএনপি মনে করে, বর্তমান জনগণের ম্যান্ডেটবিহীন সরকারের অধীন কোনো অবস্থায়ই নিরপেক্ষ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠান সম্ভব নয়।
বিএনপির মহাসচিব বলেন, ২০১৪ ও ২০১৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও স্থানীয় সরকার নির্বাচনে এই সত্য প্রমাণিত হয়েছে। বিএনপি তারই প্রেক্ষাপটে মনে করে, এখন অনুসন্ধান কমিটিতে নাম পাঠানো এবং নির্বাচন কমিশন গঠন একেবারই অর্থহীন। বিএনপি বিশ্বাস করে, ক্ষমতা কুক্ষিগত করে রাখার নীলনকশার অংশ হিসেবে পুনরায় নির্বাচন কমিশন গঠনে সরকারি তৎপরতা সেই চক্রান্তেরই অংশ।
মির্জা ফখরুল বলেন, বিএনপি মনে করে, এই সরকারের পদত্যাগ, নিরপেক্ষ সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তর এবং নিরপেক্ষ সরকারের অধীন নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় সবার গ্রহণযোগ্য একটি অংশীদারত্বমূলক নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের প্রতিনিধিত্বমূলক পার্লামেন্ট ও সরকার প্রতিষ্ঠাই বর্তমান সংকট থেকে উত্তরণের একমাত্র পথ।
এর আগে সংবাদ সম্মেলনে গত ১৪ ফেব্রুয়ারি বিএনপির নীতিনির্ধারক পর্যায়ের এক সভার বিষয়বস্তু তুলে ধরেন মির্জা ফখরুল। সোমবার রাত ৮টায় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সভাপতিত্বে ভার্চুয়ালি এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় উপস্থিত ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ড. আব্দুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।

Sharing is caring!