Sharing is caring!

দক্ষিণ ভারতের অভিনেত্রী কাজল আগারওয়াল ইনস্টাগ্রামে একটি চিঠি পোস্ট করেছিলেন। মাতৃত্বের আট মাস স্বামী গৌতম কিসলুকে কীভাবে কাছে পেয়েছেন, তারই এক কৃতজ্ঞচিত্ত বয়ান সেই চিঠি। ছয় দিনের মাথায় কাজলের কোলজুড়ে এল ফুটফুটে এক ছেলে। গৌতম ও কাজল দুজনেই আনন্দে আত্মহারা।

ভারতীয় গণমাধ্যমকে সুখবরটি দিয়েছেন কাজলের বোন নিশা আগারওয়াল। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে তিনি বলেছেন, মঙ্গলবার সকালে কাজল এক পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন। মা ও ছেলে দুজনেই সুস্থ আছে। শুধু তা–ই নয়, নিশা ইনস্টাগ্রামে কাজলের ভক্তদেরও কিছু আঁচ দিয়েছিলেন। লিখেছিলেন, ‘দারুণ একটা সুন্দর দিন। তোমাদের সবার সঙ্গে বিশেষ একটা খবর শেয়ার করার তর সইছে না। অবশেষে এল সেই সুখবর।’ চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর জানিয়েছিলেন কাজল। নিজের মাতৃত্বের দিনগুলো ভক্তদের সঙ্গে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করতেন। পোস্ট করতেন নানা রকম ছবি।

সম্প্রতি স্বামীকে একটি ধন্যবাদপত্র লিখেছেন কাজল। অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় গৌতম কিসলু যেভাবে স্ত্রীর দেখভাল করেছেন, তা নিয়ে ভীষণ খুশি এই অভিনেত্রী। কাজল লিখেছিলেন, ‘প্রিয় স্বামী, অনেক ধন্যবাদ সেরা স্বামী এবং হবু বাবা হওয়ার জন্য। প্রতিটি মেয়েই এ রকম স্বামী চায়। অনেক ধন্যবাদ, নিজের কথা না ভেবে আমার জন্য এত কিছু করার জন্য। তুমি জানো, আমার মর্নিং সিকনেস আছে। তাই প্রতি রাতে আমি হাঁটতে বের হই। নিজের কথা না ভেবে আমাকে এভাবে সঙ্গ দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ। সব সময় আমার খেয়াল রেখেছ। আমি ঠিকমতো খাবার খেয়েছি কি না, পানি খেয়েছি কি না, বিশ্রাম নিয়েছি কি না। আমাদের সন্তান আসার আগে কত যত্ন নিচ্ছ আমার। আমি জানাতে চাই তুমি কত অসাধারণ মানুষ আর কত অসাধারণ বাবা হতে যাচ্ছ।’

শিগগির কাজলকে দেখা যাবে চিরঞ্জীবী ও রামচরণ অভিনীত আচার্য ছবিতে। ২৯ এপ্রিল মুক্তি পাবে ছবিটি। সন্তানের মা–বাবা হওয়ায় সুহৃদ ও সহশিল্পীরা শুভেচ্ছায় ভাসিয়ে দিচ্ছেন কাজল ও গৌতমকে। ২০২০ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর বিয়ে করেছিলেন তাঁরা।

Sharing is caring!