Sharing is caring!

নোয়াখালী প্রতিনিধিঃ

 

নোয়াখালীর বিচ্ছিন্ন দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নে অভিযান চালিয়ে জলদস্যু বাহিনীর প্রধান রাছেলকে (২৮) আটক করেছে কোস্টগার্ড। এসময় তার কাছ থেকে দু’টি এলজি, দু’টি কার্তুজ ও তিনটি বগিদাসহ ডাকাতির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার ভোর ৫টার দিকে চৌকিদার খাল এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। আটককৃত রাছেল নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নের আদর্শ গ্রামের আব্দুল কুদ্দুছের ছেলে। সে জলদস্যু রাছেল বাহিনীর প্রধান।

কোস্টগার্ড হাতিয়া স্টেশান কমান্ডার লে. বিশ্বজিৎ বড়ুয়া জানান, জলদস্যু বাহিনী প্রধান রাছেল তার লোকজন নিয়ে নিঝুমদ্বীপের চৌকিদার খালে মেঘনা নদীতে জেলে নৌকায় ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তার (লে. বিশ্বজিৎ বড়ুয়া) নেতৃত্বে কোস্টগার্ড অভিযান চালায়। কোস্টগার্ডের উপস্থিতি টের পেয়ে রাছেল বাহিনীর সদস্যরা পালিয়ে যেতে সক্ষম হলেও ধাওয়া করে পানি থেকে রাছেলকে আটক করা হয়। এসময় তার কাছ থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়। রাছেল বাহিনী দীর্ঘদিন যাবত মেঘনা নদীতে মাছ ধরা জেলে নৌকায় ডাকাতি, জেলেদের অপহরণ, চাঁদাবাজি ও খুন করে আসছিল। তার বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে হাতিয়া থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল খায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এই ঘটনায় কোস্টগার্ড বাদী হয়ে রাছেলের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে। আটককৃত রাছেলের বিরুদ্ধে আগের ৭-৮টি মামলা রয়েছে।

Sharing is caring!